ফাঁকা স্টেডিয়ামে দর্শকের কৃত্রিম আওয়াজ শুনতে চান আর্চার

0
252

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
করোনা পরবর্তী সময় ফাঁকা মাঠে ক্রিকেট ফেরানো নিয়ে নানা গুণীর নানা মত। এমন সময় দর্শকহীন স্টেডিয়ামে ক্রিকেটারদের খেলতে যাতে অসুবিধা না হয় সেজন্য দারুণ একটি প্রস্তাব দিলেন ইংরেজ পেসার জোফ্রা আর্চার। তিনি জানিয়েছেন, করোনা পরবর্তী সময় গ্যালারিতে দর্শক চিৎকারের কৃত্রিম অডিও বাজানো হোক। যাতে স্টেডিয়ামের পরিবেশ রিয়ালিস্টিক হয়ে ওঠে।
মার্চের মাঝামাঝি সময় থেকে করোনা ভাইরাসের জেরে অন্যান্য স্পোর্টসের সঙ্গে বন্ধ বাইশ গজও। মাসদু’য়েক লকডাউনে থাকার পর ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে চালু হচ্ছে ফুটবল। করোনার প্রভাবে হাজার-হাজার মানুষের প্রাণ হারিয়েও দেশের প্রিমিয়র ডিভিশন লিগ চালুর ব্যাপারের অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছে জার্মানি, স্পেন কিংবা ইতালির মতো দেশগুলি। তবে বাইশ গজে ক্রিকেট ফেরানো নিয়ে এখনও সদর্থক কোনও ভূমিকা নেয়নি কোনও দেশ। কিছু ক্ষেত্রে ক্রিকেট ফেরাতে ইতিবাচক আলোচনার পথে হেঁটেছে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশগুলি। তবে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ম্যাচ আয়োজনই ক্রিকেট ফেরানোর প্রধান শর্ত। কিন্তু ফাঁকা স্টেডিয়ামে ক্রিকেট চালুর ব্যাপারটি অনেকের মতোই খুব একটা পছন্দ নয় ইংল্যান্ডের কৃষ্ণাঙ্গ পেসার জোফ্রা আর্চারের। তবে একইসঙ্গে মাঠেও ফিরতে চাইছেন তিনি। আর সে কারণে আর্চার বলছেন দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে ক্রিকেট শুরু হলে সেক্ষেত্রে গ্যালারিতে দর্শক চিৎকারের কৃত্রিম অডিও বাজানো হোক। তাতে অন্তত পরিবেশটা রিয়ালিস্টিক হয়ে উঠবে। জোফ্রা জানিয়েছেন, ‘দর্শকহীন ক্রিকেটের সঙ্গে মানিয়ে নিতে বেশ কিছুটা সময় লাগবে। আমাদের যদি দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলতেই হয়, তাহলে সেক্ষেত্রে স্টেডিয়ামের কৃত্রিম হাততালির শব্দের ব্যবস্থা করা যেতে পারে। সবমিলিয়ে যতটা সম্ভব রিয়ালিস্টিক করা যায়।’
প্রসঙ্গত, জরুরি অবস্থা শেষ হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামেই ম্যাচ আয়োজনের পরিকল্পনা করছে ইংল্যান্ড। এখন দেখার জোফ্রার প্রস্তাব কতোা গুরুত্ব সহকারে বিবেচিত হয় সেক্ষেত্রে। এছাড়া করোনা পরবর্তী সময় ক্রিকেট ফেরাতে সতর্কতামূলক বিবিধ ব্যবস্থা গ্রহণ করার পথে ইসিবি। শোনা যাচ্ছে, পরবর্তী সময় বায়ো-সিকিওর ভেন্যুতে ম্যাচ আয়োজন করবে তারা। যেখানে মাঠে থেকেও ক্রিকেটারদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে পারবে মেডিক্যাল টিম।
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।