ফাঁসির বিধান রেখে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তির দাবি

0
141

দেশগ্রামে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ

খাগড়াছড়ি : আমাদের খাগড়াছড়ি প্রতিবেদক জানায়, ক্রমবর্ধমান নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে খাগড়াছড়িতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার সকালে খাগড়াছড়ি শহীদ মিনারের সামনে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন খাগড়াছড়ি শাখার উদ্যোগে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সুশীল সমাজ, সামাজিক- সাংস্কৃতিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। এসময় বক্তব্য রাখেন সুজন এর খাগড়াছড়ি শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন আহম্মদ, সদস্য মুহাম্মদ আবু দাউদ। মানববন্ধনে বক্তারা নারী নির্যাতন দমন আইন সরকারের বিশেষ নজরদারি দেওয়ার দাবি জানান। একই সাথে সর্বোচ্চ শাস্তি মত্যুদন্ড বিধান রেখে দ্রুত সময়ের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি ও মামলার রায় কার্যকরের দাবীও জানান বক্তারা।

চকরিয়া : আমাদের চকরিয়া প্রতিনিধি জানায়,দেশব্যাপী নারীর প্রতি সহিংসতা, নির্যাতন ও ধর্ষণের প্রতিবাদে ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) জাতীয় ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার ও বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক কতৃক সারাদেশে একযোগে মানববন্ধন পালনের কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া পৌরশহরে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। চকরিয়া উপজেলা সুজন, জাতীয় কন্যাশিশু এডভোকেসী ফোরাম, জাতীয় ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার ও বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক এর আয়োজনে চকরিয়া সদর প্রধান সড়ক সংলগ্ন নিউমার্কেটের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। শনিবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মানববন্ধন কর্মসূচিতে চকরিয়া উপজেলার দলমত জাতি ধর্ম, নির্বিশেষে সর্বস্তরের মানুষ অংশনেন।মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সুজন চকরিয়া উপজেলা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা হাজি বশিরুল আলম,কর্মশালা ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক মহি উদ্দিন মহৎ খোকন,সহ-সম্পাদক মনির উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক মনসুর মহসিন, নিবাহী সদস্য তানভীরুল ইসলাম, রুজিনা আক্তার,নারী নেত্রী নিগার উম্মে সালমা এ্যানী,আন্জুমান আরা, ইয়ুথ লিড়ার আরমান, রুক্সী, খাইরুলসহ আরো অনেকে। কার্যক্রমটিতে সভাপতিত্ব করেন সুশাসনের জন্য নাগরিক চকরিয়া উপজেলা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুল কবির ও সঞ্চালনা করেন চকরিয়া সুজন কমিটির সম্পাদক এ্যাডভোকেট মিফতাহ উদ্দিন আহম্মেদ। মানববন্ধন অনুষ্ঠানের সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্টের সমন্বয়কারী মোহাম্মদ মাইনুল ইসলাম।