বাল্যবিয়ে ও মানবপাচার প্রতিরোধে বিটা’র প্রশিক্ষণ

0
256
মানবপাচার ও বাল্য বিয়ে রোধে নারী প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীরা

 

মানবপাচার দেশে ও বিদেশে যেকোন স্থানেই ঘটতে পারে। এজন্য সচেতনতা তৈরি হবে ঘর থেকে, সমাজের মানুষ সচেতন হলে  দেশ তথা রাষ্ট্রের উন্নয়ন হবে। একজন নারী যদি সচেতন হয় তাহলে পরিবার হবে নিরাপদ।

আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ইউএসএআইডি, উইনরক ইন্টারন্যাশনাল ও বাস্তবায়নকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব থিয়েটার আর্টস (বিটা) এর আয়োজনে ‘বাংলাদেশ কাউন্টার ট্রাফিকিং-ইন-পারসনস (বিসিটিআইপি) প্রোগ্রামে’র আওতায় ১৯ ও ২০ জুলাই দুই দিনব্যাপী কক্সবাজারে উখিয়া ও টেকনাফের তৃণমূল পর্যায়ের বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে নারীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

বিভিন্ন পেশার ২০ জন নারীকে ‘নিরাপদ অভিবাসন, মানবপাচার, মানবচোরাচালান, বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭, বাল্যবিয়ের সাথে মানবপাচারের সম্পর্ক ও জেন্ডারভিত্তিক সহিংসতা বিষয়ে প্রশিক্ষক প্রশিক্ষণ’ বিটা’র প্রকল্প অফিস হোয়াইক্যং এ অনুষ্ঠিত হয়।

নারী নেত্রী সাহেদা আক্তার বলেন, ‘এ প্রশিক্ষণ সমাজে বাস্তবায়ন করলে সমাজের মানুষ সচেতন হবে। মানবপাচার ও অভিবাসন সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছি।’

প্রশিক্ষণার্থী রাফি বলেন, এ প্রশিক্ষণ পেয়ে ‘উঠান বৈঠকের মাধ্যমে সবাইকে সমাজের বাল্যবিবাহ ও মানবপাচার প্রতিরোধ সম্পর্কে সচেতন করতে পারবো’।

দুইদিনে প্রশিক্ষক হিসেবে বিটার প্রকল্প সমন্বয়কারী সুমন সেন, ক্যাপাসিটি ডেভেলপমেন্ট ও কমিউনিকেশন অফিসার মাহমুদল হক জিহাদ ও কাউন্সিলর ফারজানা আক্তার তাপসী প্রশিক্ষণ পরিচালনা করেন। বিজ্ঞপ্তি