দেশগ্রামে ছাত্রলীগের মানববন্ধন

0
190
পটিয়া সরকারি কলেজে মানববন্ধন-সুপ্রভাত

ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ

পটিয়া : আমাদের পটিয়া প্রতিনিধি জানায়,ধর্ষণ, নারী নির্যাতনকারীদের শাস্তির দাবিতে পটিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান সড়কের পটিয়া কলেজ গেট এলাকায় ছাত্রলীগের উদ্যোগে কয়েকশ শিক্ষার্থী মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন। এসময় বক্তব্য রাখেন পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পৌরসভার কাউন্সিলর গোফরান রানা, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তারেকুর রহমান তারেক, শাহরিয়ার শাহজাহান, দক্ষিণ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোরশেদুল আলম অভি, যুগ্ম সম্পাদক নেজাম উদ্দিন নিজাম, দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক পিন্টু দাশ রুদ্র, আবু তাহের আতনান, জাবেদ হোসেন, গালিব চৌধুরী, হাবিবুর রহমান, মিনহাজুল ইসলাম, সাইদুল আলম তানিম, পার্থ দাশ, ইরফান উদ্দিন, গাজী মো. রিদুয়ান, বিজয় ভট্টচার্য্য, মো. সাকিব, মহিউদ্দিন, মো. সাজ্জাদ, আবুল মুনছুর। মানববন্ধনে পৌরসভা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পৌর কাউন্সিলর গোফরান রানা বলেন, সারা দেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে তা খুবই দু:খজনক। সরকার এদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিলেও কিছু কিছু জায়গায় আন্দোলনের নামে যেন সরকারবিরোধী কর্মসূচি পালন করছে। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব তারেক রহমান লন্ডনে বসে বাংলাদেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করতে আন্দোলনের নামে পাঁয়তারা করছে। এদের থেকে সজাগ থাকতে দেশরত্ম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। ধর্ষকদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে পটিয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়।
ফটিকছড়ি : আমাদের ফটিকছড়ি প্রতিনিধি জানায়,সারা দেশে ধারাবাহিকভাবে সংঘটিত ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদ ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করেছে ফটিকছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগ। গত বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। প্রায় ঘণ্টাব্যপী এই মোমবাতি প্রজ্জ্বলন চালাকালে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জামাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক রায়হায় রুপু।এসময় বক্তারা বলেন,ধর্ষণের প্রতিবাদ এবং ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ-ের দাবিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ঘোষিত কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে আমরা মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করেছি। ধর্ষকদের কোনো দল-মত নেই। সে যেই হোক না কেন আমরা তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। আজ এই আলোক প্রজ্বলন কর্মসূচি থেকে আমরা সেই বার্তাটি দিতে চাই। এসময় রফিকুল ইসলাম, নজরুল পিয়াল চৌধুরী, রাভিন, জিকু, উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইমরান, জয়নাল আবেদীন, রাহুল, আরিফ, সাহেদ, শিমুল, পিয়াল, রিফাত, রাজু, তপু, আনোয়ারসহ শতাধিক ছাত্রলীগের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।