জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে হবে 

217

নিজস্ব প্রতিনিধি, আনোয়ারা »

যে মূহুর্তে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, উপসর্গ থাকলেও হাসপাতালের দুয়ার থেকে তাড়ানো হচ্ছে  রোগী সে মূহুর্র্তে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলার চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন সামাজিক সমন্বয় পরিষদ ১৩টি সামাজিক সংগঠন নিয়ে এক ছাদের নিচে শপথ নিয়েছিলেন মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য। খাদ্য, বস্ত্র, জরুরী অ্যাম্বুলেন্স, বিনামূল্যে ওষুধ ও অক্সিজেন সরবরাহ কাযর্ক্রমসহ দিয়েছেন করোনা আক্রান্তদের সেবা।দীর্ঘ আড়াই মাসে নন কোভিড ও কোভিড আক্রান্তসহ সেবা পেয়েছেন ৬শ২১ জন রোগী। তারমধ্যে গর্ভবতী ৬৩ জন নারী, ২৬জন শিশু ও ১শ৪০ জন সাধারণ রোগী চট্গ্রাম সাউচ হসপিটালের মাধ্যমে জরুরি সেবা পেয়েছেন আর ১০ জন পেয়েছেন অক্সিজেন সেবা। বিনামূল্যে ওষুধ দিয়েছে ২শ জন রোগীকে। ৩ জন গর্ভবর্তী নারীকে বিনা খরচে করানো হয়েছে সিজার ও নরমাল ডেলিভারি। জটিল রোগে আক্রান্ত রোগীদের নগদ ৬৫ হাজার টাকা দিয়েছেন অনুদান। আর এসব করেছেন কর্ণফুলী উপজেলার চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন সামাজিক সমন্বয় পরিষদ। গত শুক্রবার  বিকালে দীর্ঘ আড়াই মাসের করোনার ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্পের কর্মসূচি সমাপ্তি এবং নতুন কার্যক্রম ও সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন সংগঠনের আহবায়ক ও ডায়মন্ড সিমেন্ট লিমিটেডের চেয়ারম্যান লায়ন হাকিম আলী।তিনি আরো বলেন, জনগণের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে হবে। দেশে করোনা ভ্যাকসিন আসলে যাতে এ এলাকার মানুষ বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পায় সে উদ্যোগ গ্রহণ করব আমরা এ তহবিলের টাকা থেকে। এছাড়াও চরপাথরঘাটা ইউনিয়নে একটি আজিম-হাকিম স্বাস্থ্য ক্লিনিক করার জন্য ১০শ বা ৫ গন্ডা জমি প্রদানের ঘোষণাও করেন তিনি। ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি মহোদয়ের সহয়তায় দ্রুতসময়ে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করছে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করবো।

সংগঠন সমন্বয় পরিষদের সদস্য সচিব ও কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সেলিম হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম ফিল্ড হসপিটালের উদ্যোক্তা ডা. বিদ্যুৎ বড়–য়া, বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সির্ভিল সার্জল ডা. সরফরাজ খান বাবুল, দক্ষিণ জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সংগঠনের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমেদ, এম.এ মারুফ, কামাল উদ্দিন আহমেদ, ডা. জাগির হোসেন, ডা. রাহেলা বানু, ডা. ফারুক আহমেদ, ডা. গিয়াস উদ্দিন, মার্শাল মনির আহমদ, আলী হায়দার, সেলিম খান, মহিউদ্দিন মঞ্জু, রহমান রমু, সাত্তার আরিফ, রনি সাব্বির প্রমূখ। ডা. বিদ্যুৎ বড়–য়া, বলেন, মাত্র এক লাখ মানুষ ১শ টাকা করে দিলেই এক কোটি টাকার ফান্ড হবে আর এ টাকায় হাসপাতাল তৈরি সম্ভব যেটি আমি করেছি। আপনাদের জন্যই শুভ কামনা রইল। অনুষ্ঠান শেষে করোনা দুর্যোগে অসহায় মানুষের ফ্রি চিকিৎসা সেবা নিয়ে অসাধারণ প্রতিবেদন লেখায় মানবিক সাংবাদিক ও চিকিৎসা সেবায় বিশেষ অবদান রাখায় মানবিক ডাক্তারদের সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিরা।