চকরিয়ায় কার্টনে মিলেছে নবজাতকের লাশ

0
53

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া :

চকরিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সড়কে একটি প্যাকেট মোড়ানো অবস্থায় সদ্যভূমিষ্ঠ হওয়া নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

২০ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯ টার দিকে পৌরসভার দুই নম্বর ওয়ার্ডের শমসের পাড়ার (চকরিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়) সড়কের পাশের পরিত্যক্ত এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানিয়েছে, মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে চকরিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দক্ষিণ পাশের সড়কে (শমসের পাড়া) এলাকায় প্যাকেট মোড়ানো অবস্থায় এক নবজাতক শিশুর মরদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে নবজাতক শিশুর মরদেহ দেখতে পেয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। অবশ্য ঘটনার খবর পেয়ে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর রেজাউল করিম ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। এরপরই ৯৯৯ নম্বরে ফোন কলের সূত্রে ধরে চকরিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) গোলাম সরওয়ার ও উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) মাসুদ রানার নেতৃত্বে পুলিশদল রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছে নবজাতক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেন। নবজাতকের মরদেহ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। ওইসময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কার্টুনে মোড়ানো অপরিপক্ক নবজাতক এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে। ওসি বলেন, নবজাতকের শরীরের কিছু কিছু অংশে হালকা দাগ রয়েছে। লাশটি ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

এ ব্যাপারে থানায় একটি জিডি করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িতদের সন্ধানে আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছে, কোন তরুণ-তরুণী অবৈধ প্রেমের সুবাদে শারীরিক সম্পর্কে জড়ান। এতে তরুণী অন্তঃসত্তা হয়ে পড়লে বা প্রেমিক তাকে বিয়ে করতে অনীহা দেখালে বিষয়টি সামাজিক লোকলজ্জা কিংবা পারিবারিক সম্মানহানির ভয়ে রাতের আঁধারে নবজাতের মরদেহটি সড়কের পাশে ফেলে পালিয়ে গেছে পাষাণী মা অথবা তাঁর পরিবার।

এলাকাবাসী দাবি করেছেন, চকরিয়া সরকারি হাসপাতাল সড়কের বিভিন্ন বাসা-বাড়ির স্থাপিত সিসি ক্যামেরার ফুজেট তল্লাশি করা হলে মরদেহটি ফেলে যাওয়াদের মুখোশ উন্মোচন হবে।