খুনি মোস্তাকের অনুসারীদের বিষ দাঁত ভেঙে দিতে হবে

0
223

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া »

বাংলাদেশ আওয়ামী  য্বুলীগ চকরিয়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস ও গ্রেনেড হামলা দিবস এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে গত রোববার  বিকালে চকরিয়া আবাসিক মহিলা কলেজ মিলনায়তনে আলোচনা সভা খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল এবং বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম শহীদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব কাউছার উদ্দীন কছিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চকরিয়া- পেকুয়া (কক্সবাজার-১) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম।  সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন কক্সবাজার জেলা যুবলীগের সভাপতি সোহেল আহম্মদ বাহাদুর। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন শহিদুল হক সোহেল। এছাড়াও আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক লায়ন কমরুদ্দীন আহম্মদ, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, আমিনুর রশিদ দুলাল, জামাল উদ্দীন জয়নাল, আজিমুল হক চেয়ারম্যান, অ্যাডভোকেট লুৎফুর কবির, মো. কাইছার, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ওয়ালিদ মিল্টন, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন।

উপজেলা যুবলীগের কর্মসুচিতে অংশ নেন দারুছালাম মো. রফিক,আহম্মদ রেজা, মো. ইসমাইল সিআইপি, কুতুবউদ্দীন, আরিফ উলাহ্, নুরুল আলম, রিগ্যান আরাফাত, মো. হানিফ, নাসির সিকদার, আমির হোসেন, ইব্রাহিম, আলমগীর মুন্না, মোনাফ সিকদার,মিজানুর রহমান হিমেল।সভার শুরুতে বক্তব্য রাখেন শওকত হোসেন, জামাল উদ্দীন, সাইফুদ্দীন মামুন,হাসানগীর হোসাইন, খলিল উলাহ্ চৌধুরী, আজিজুল হক সেহেল, সুলাল কান্তি সুশীল,  আব্দুলাহ্ আল ফারুক লোটাস, মুজিবুল হক, মোজাফ্ফর হোসেন পল্টু, জাবেদ হোসেন পুতুল, কামরুল হাসান কাইছার, মহিদুল ইসলাম, মামুনুল করিম ।

সমাবেশে এমপি জাফর আলম বলেন, শোকের মাস আগস্ট আসলেই সেই ৭৫ এর মতো দলের ভিতরে ঘাপটি মেরে থাকা খন্দকার মোস্তাকের উত্তরসুরীরা ষড়যন্ত্রে মেতে উঠে। এরই ধারাবাহিকতায় জননেত্রী শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশকে নিয়ে এখনো ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে মোস্তাকের লোকজন। আজকের শোকদিবসের ডাক হোক, যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে সেই ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোর হস্তে মোকাবেলা করতে হবে। তাদের বিষদাঁত ভেঙে দিতে হবে।

প্রধান বক্তা কক্সবাজার জেলা যুবলীগ সভাপতি সোহেল আহমদ বাহাদুরের বলেন ১৯৭৫ সালের মূল উদ্দেশ্য পুরণে ব্যর্থ হয়ে স্বাধীনতা বিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে উদ্যত হয়েছিল। তারা ব্যর্থ হয়। তাই আগামীতে যুবলীগ নেতাকর্মীদের রাজপথে সজাগ থাকতে হবে।