সাতকানিয়ায় বখাটের বিরুদ্ধে কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিং ইউএনও’র নিকট অভিযোগ

0
228

নিজস্ব প্রতিনিধি, সাতকানিয়া

সাতকানিয়ার বাজালিয়ায় এক বখাটে যুবক কর্তৃক কলেজ ছাত্রীকে ইভটিজিং ও কু-প্রস্তাব দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। তাছাড়া অপর এক ব্যক্তিকে ওই বখাটের নিজস্ব ফেসবুক ভেরিফাইড পেজ থেকে অশ্লীল ও মানহানিকর মন্তব্য করারও অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ দুঘটনায় বখাটের বিরুদ্ধে সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর ও থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার কলেজ ছাত্রী ইউএনও এবং ফেসবুকে অশ্লীল ও মানহানিকর মন্তব্যে শিকার ব্যক্তি থানায় এ অভিযোগগুলো দায়ের করেন। অভিযুক্ত বখাটে হলেন উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড বটতল এলাকার দিলীপ চৌধুরীর ছেলে প্রমিজ চৌধুরী (২৫)।

অন্যদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ প্রমিজের যন্ত্রণায় এলাকার লোকজন ও স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীরা অতিষ্ঠ। সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট দায়েরকৃত ওই ছাত্রীর অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই ছাত্রী উপজেলার বাজালিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড বটতল এলাকার বাসিন্দা। তিনি চট্টগ্রাম কলেজে বিএসসি (গণিত) তে অধ্যয়নরত।  করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পর চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন এলাকা ক্রমান্বয়ে লকডাউন করা হলে তিনি গ্রামের বাড়ি চলে আসেন।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে ইউএনও’র নিকট অভিযোগ দেয়ার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে ওই ছাত্রী বলেন, প্রমিজ চৌধুরী নামে ছেলেটি এলাকায় বখাটে হিসেবে পরিচিত। আমি বাড়ি আসার পর থেকে সে আমাকে বিভিন্নভাবে ইভটিজিং ও কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছে। তাতে আমি রাজিনা হলে আমার বসতঘরে এসেও আমাকে হুমকি প্রদান করছে প্রতিনিয়ত। এমনকি আমার বাবা ও ভাইকে রাস্তায় দেখলে তাদেরকে আমার নামে বিভিন্ন অশ্লীল কথা-বার্তা বলছে। এছাড়া আমাকে তুলে নিয়ে গুম করে ফেলার হুমকি দেয়ায় বর্তমানে আমি নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে দিনাতিপাত করছি। যার কারণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার অভিযোগ দিয়েছি।

অপরদিকে উপজেলার কেঁওচিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার স্বপন নন্দীর ছেলে রাজিব নন্দীর বিরুদ্ধে প্রমিজ চৌধুরীর নিজস্ব ফেসবুক ভেরিফাইড পেজ থেকে নানা ধরনের মিথ্যা, অশ্লীল ও মানহানিকর পোস্ট দিয়ে হুমকি ধমকি প্রদান করার অভিযোগে রাজিব নন্দী বাদি হয়ে সাতকানিয়া থানায় অপর একটি অভিযোগ দায়ের করেন।  এ ব্যাপারে প্রমিজ চৌধুরীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে বারবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

কলেজ ছাত্রীর অভিযোগ সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূর-এ-আলম ও রাজিব নন্দীর অভিযোগ সাতকানিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মাহমুদুল করিম প্রাপ্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক যথাযথ ব্যবস্থাগ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন।