পাহাড়ি-বাঙালি সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে : কুজেন্দ্র

0
71

নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙা

পার্বত্য চট্টগ্রামকে বাংলাদেশের অবিচ্ছেদ্য অংশ উল্লে­খ করে ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান (প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা) কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম আলাদা কোন দেশ নয়। পাহাড়ি-বাঙালি আমরা সকলেই বাংলাদেশি। আমাদের পরিচয় আমরা বাংলাদেশি। এ পরিচয়েই আমরা সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছি। জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ যেন মাথাছাড়া দিয়ে উঠতে না পারে  সেজন্য প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করে তিনি।

মাটিরাঙার তবলছড়ির লাইফু কুমার কার্বারী পাড়ায় বাঙালি কৃষকদের উপর সশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শনের আগে স্থানীয় পাহাড়ি-বাঙালি সম্প্রদায়ের সাথে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরের দিকে তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন, খাগড়াছড়ির  জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, যামিনীপাড়া বিজিবির অধিনায়ক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ও খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মো. আব্দুল আজিজ প্রমুখ বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা যদি বাঙালিদের উপর কোন ধরনের হামলা চালায় তাহলে বাঙালিদের বিক্ষোভ মিছিল না করে প্রশাসনের সহযোগিতা নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। তিনি বলেন, পাহাড়ি-বাঙালিদের মধ্যে শান্তি সম্প্রীতি বজায় রাখতে যা যা করা দরকার প্রয়োজনীয় সবকিছু করবে সরকার।

পাহাড়ের শান্তি, সম্প্রীতি ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে পাহাড়ি-বাঙালিদের মিলেমিশে বসবাস করার আহবান জানিয়ে বক্তারা বলেন, বাঙালিদের উপর হামলার ঘটনায় যারা গুজব ছড়াচ্ছে তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।

এসময় মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিজ ফারজানা আক্তার ববি, মাটিরাঙা থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আলী, মাটিরাঙা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য হিরন জয় ত্রিপুরা, মো. মাইন উদ্দিন, মো. আব্দুল জব্বার, তবলছড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাদের ও তাইন্দং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবীর প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে ৪ এপ্রিল বাঙালি কৃষকদের উপর সশস্ত্র সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।

এসময় গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন, খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, যামিনীপাড়া বিজিবির অধিনায়ক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান ও খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মো. আব্দুল আজিজসহ সামরিক-বেসামরিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ তাঁর সাথে ছিলেন।