দেশগ্রামে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

0
149

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদ

চকরিয়া : আমাদের চকরিয়া প্রতিনিধি জানায়,কুষ্টিয়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা করেছেন কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন। শনিবার ১২ ডিসেম্বর উপজেলা পরিষদের সামনে কর্মসুচিতে অংশ নেন প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের দায়িত্বশীল কর্মকর্তা-কর্মচারী। অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ কর্মসুচিতে অংশ নেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো.তানভীর হোসেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এসএম নাছিম হোসেন, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা বেনজির আহমদ, উপজেলা রেড ক্রিসেন্ট কর্মকর্তা মুনীর চৌধুরী, উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা জাহাংগীর আলম, উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা আবু জাফর। এছাড়াও কর্মসুচিতে উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, উপজেলা পরিষদদের কর্মকর্তা কর্মচারী এবং শ্রেণি-পেশার অসংখ্য নাগরিক উপস্থিত ছিলেন। প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বক্তারা কুষ্টিয়া জেলায় নির্মানাধীন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলা ও অবমাননা করার তীব্র নিন্দা প্রকাশ করেন। একইসঙ্গে ঘটনায় জড়িতদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিতে দাবি জানান।

আনোয়ারা : আমাদের আনোয়ারা প্রতিনিধি জানায়,কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের প্রতিবাদে চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের নির্দেশে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। সম্প্রতি উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য আবু সুফিয়ান সাকিবের নেতৃত্বে উপজেলার কলেজ বাজার এলাকা থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে প্রতিবাদ সভার মাধ্যমে শেষ হয়। এতে মোহাম্মদ শাওন, মোহাম্মদ জিয়া, আবু তালেব আকিব, মোহাম্মদ রানা, আরমান হায়াত অপি, মোহাম্মদ মামুন, মোহাম্মদ ইমন, মোহাম্মদ টিপু, মোহাম্মদ কায়ছার, মোহাম্মদ রহিম, তপন নাথ, মোহাম্মদ জাহেদ, আরিফুল ইসলাম, সাঈদ আদনাত হায়াত, অজয় বড়–য়া, মোহাম্মদ সাকিল ইব্রাহিম, মোহাম্মদ আকাশ, আরমান হাসান রিফাত, শাহাদাত হাসান আদিল, মোহাম্মদ সুমন, মোহাম্মদ রায়হান,  মোহাম্মদ নিলয়, মোহাম্মদ মিজান, মোহাম্মদ মিনহাজ, মোহাম্মদ সজীব, মোহাম্মদ ওসমান, রেজাউল করিম, মোহাম্মদ মিজবা, মোহাম্মদ ফরহাদ ইবান, আলাউদ্দিন, মোহাম্মদ রাজু, ওসমান খান, শহীদুল ইসলাম নয়ন, আতিফুর ইসলাম হাবিব, সাকিব আহমেদ, সাব্বির উল্লাহ, আরফান শুভ, নয়ন বাবু, জিসান তালুকদার  সৌরভ, লোকমান উদ্দিন ইফসান, মোহাম্মদ আরিফ, মোহাম্মদ নোমানসহ ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের  নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

পটিয়া : আমাদের পটিয়া প্রতিনিধি জানায়,পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী বলেছেন, স্বাধীনতাবিরোধী জামায়াত-বিএনপি বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য ভেঙে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে। মুজিব শতবর্ষকে লক্ষ্য করে তারা স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি এ অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব ষড়যন্ত্রে জড়িতদের সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে পটিয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোতাহেরুল ইসলাম এ কথা বলেন। পটিয়া উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শামশুল ইসলাম চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক রফিক হাসানের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ.ক.ম সামশুজ্জামান, নুরুল হাকিম, ইঞ্জিনিয়ার ইসলাম আহমদ, এম এ রহিম, কামরুল হাসান বাবু, মো. আবু জাফর, বদিউল আলম তুষার, খলিল আহমদ, নুরুল আলম কন্ট্রাক্টটার, মো. ইদ্রিছ, মো. আলী, নাজিম উদ্দিন বাহাদুর, হাজি ওসমান গনি, নুর মোহাম্মদ, আবদুর রহিম, মিন্টু দে, রমজান আলী সর্দার, ইকবাল আহমেদ, মো. ইছহাক, দিদারুল আলম, নাজিম উদ্দিন খোকন, হুমায়ুন কবির, মো. আলমগীর, মো. হারুন, মো. সেলিম, জাফর আলম, মামুনুর রশিদ, আবদুস শুক্কুর, শেখ মনির, আবদুল মাবুদ, মো. নাছির, হাদী শাহ জামাল, ফারজানা হক মিতু, জিল্লুর রহমান, গাজী মফিজুর রহমান, ফজলুর রহমান মফিজ, আবদুল করিম, আবদুর রহিম,  মো. জাহাঙ্গীর আলম, শাহজাদা মো. সোহেল কাদের মনিরী, মো. শফি, ডা. মুছা চৌধুরী, মো. ইলিয়াছ, জালাল আহমদ, জসিম উদ্দিন, আবদুল গনি, উত্তম তালুকদার, সৈয়দ নুর, আবদুল আজিজ, শামশুল আলম, হায়দার আলী।

রাউজান : আমাদের রাউজান প্রতিনিধি জানায়, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে রাউজান উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। গত ১২ ডিসেম্বর শনিবার সকালে রাউজান উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানববন্ধন কর্মসুচিতে সভাপতিত্ব করেন রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরকারীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন রাউজান উপজেলা সদ্যবিদায়ী উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি আবদুল্ল্যাহ আল মাহমুদ ভুইয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ, রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশির উদ্দিন খান, রাউজান থানার ওসি আবদুল্ল্যাহ আল হারুন, রাউজান উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল, চেয়ারম্যানর আবদুল রহমান চৌধুরী,উপজেলা প্রকৌশলী আবুল কালাম, উপজেলা মৎস্য অফিসার পিযুষ প্রভাকর, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মনিরুজ্জমান চৌধুরী, আবদুল কুদ্দুস, মুজিবুর রহমান খান, শাহ ই জাহান, মনির হোসাইন, রহমত উল্ল্রাহ, আকলিমা সুলতানা, সুবর্ণা সুমাইয়া, অ্যাডভোকেট দিলিপ কুমার চৌধুরী, শওকত হাসান চৌধুরী প্রমুখ।