গহিরায় ফসলী জমি ভরাট করে ব্যাণিজিক ভবন নির্মাণের চেষ্টা

0
78

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান :

রাউজান উপজেলার গহিরা ইউনিয়নের লামার বাজার এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে সরকারি নির্দেশনাকে অমান্য করে ফসলী জমিতে মাটি ভরাট করছে ঐ এলাকার বাসিন্দা জহির আহম্মদ।

রাউজানের সাংসদ ফজলে করিম চৌধুরী ও রাউজান উপজেলা প্রশাসন কয়েক দপে উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির সভায় সরকারি কোন স্থাপনা নির্মাণ ব্যতিত কোন কৃষি জমি মাটি ভরাট করা কৃষি জমির মাটি কাটা যাবে না বলে নির্দেশ দেয়।

সভায় উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাউজান পৌরসভার কাউন্সিলর ও ১৪টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উপস্থিত ছিলেন। রাউজানের সাংসদ এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী ও রাউজান উপজেলা প্রশাসনের কঠোর নিদের্শকে অমান্য করে কদলপুর ও রাউজান পৌরসভা সদরে কৃষি জমি মাটি ভরাট করার সময়ে রাউজান উপজেলা নির্বাহী অফিসার জোনায়েদ কবির সোহাগের নির্দেশে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বাধা প্রদান করে মাটি কাটার কাজে ব্যবহৃত এসকেলেভেটার ও মাটি ভর্তি ড্রাম ট্রাক আটক করে । গত কয়েকদিন ধরে প্রকাশ্য দিবালোকে রাউজান উপজেলা গহিরা ইউনিয়নের লামার বাজার এলাকায় লামার বাজার এলাকার বাসিন্দা জহির আহম্মদ বিশাল আয়তনের তার মালিকাধীন ফসলী জমি মাটি ভরাট করলে ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিরবতা পালন করছে। গতকাল ১৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় গহিরা ইউনিয়নের লামার বাজার এলাকায় একটি দোকানের সামনে বেঞ্চে বসে রয়েছে ফসলী জমিতে মাটি ভরাট কারী জহির আহম্মদ।

মাটি ভরাট করার কথা জানতে চাইলে জহির আহম্মদ বলেন, স্থানীয় মেম্বার খোরশেদ আলম ফসলী জমিতে মাটি ভরাট করছে। এ ব্যাপারে গহিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আবছার বাশিকে ফোন করে জানতে চাইলে, গহিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আবছার বাশি ফসলী জমিতে মাটি ভরাট করার বিষয়ে কিছুই জানে না বলে জানান ।

গহিরা ইউনিয়নের লামার বাজার এলাকায় জহির আহম্মদ তার ফসলী জমিতে মাটি ভরাট করছে, ঐ মাটি গহিরা দলই নগর তাহের মোল্লার বাড়ীর পাশে সর্তা খালের পাশে চর কেটে ড্রাম ট্রাক যোগে পরান কৃষ্ণ মহাজন সড়ক হয়ে গহিরা ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের পাশ দিয়ে নিয়ে যেতে দেখা যায় । মাটি ভর্তি ড্রাম টাক করে মাটি পরিবহন করায় পরান কৃষ্ণ সড়কের বিভিন্ন অংশে সড়ক দেবে যায় । এ ব্যাপারে গহিরা ইউনিয়নের মেম্বার খোরশেদুল আলম বলেন, লামার বাজার এলাকায় ফসলী জমি মাটি ভরাট করছে জহির আহম্মদ, ফসলী জমিতে মাটি ভরাটের কাজে আমার কোন সম্পৃক্ততা নেই ।