স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর গুরুত্বারোপ

0
34

নগরীতে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে নগরীর বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এ সময় বক্তারা বলেন, চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে আমাদের সকলকে অবশ্যই মাস্ক পড়তে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। বক্তারা সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
ডিজিটাল আন্তর্জাতিক
মানবাধিকার ফাউন্ডেশন
করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে নগরের নিউ মার্কেট, দোস্ত বিল্ডিং, আলকরণ, কোতোয়ালী, কোর্টহিল ও লালদীঘি এলাকায় ১১ এপ্রিল সাধারণ মানুষ ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন ডিজিটাল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগের নেতৃবৃন্দ।
এ সময় মাস্ক বিতরণকালে নেতৃবৃন্দরা বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার ও স্বাস্থ্য বিভাগ নির্দেশিত নির্দেশনা মেনে চলে করোনামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে আমাদের সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
চলমান বৈশ্বিক মহামারী করোনা পরিস্থিতি প্রতিরোধে ঘরের বাইরে গেলে অবশ্যই আমাদের সকলকে মাস্ক পড়তে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে।
সংগঠনের বিভাগীয় সভাপতি মো হাসান মুরাদ ও সাধারণ সম্পাদক স ম জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা তৈরি ও মাস্ক বিতরণকালে এ সময় উপস্থিত ছিলেন চসিক কাউন্সিলর আব্দুস সালাম মাসুম, মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য লায়ন এম এ নেওয়াজ, ভাড়াটিয়া পরিষদ চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি মো কালিম শেখ, সংগঠনের কেন্দ্রীয় উপ-প্রচার সম্পাদক সাথী কামাল, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ-সভাপতি এডভোকেট ইউনুস মিয়া, উপ-প্রচার সম্পাদক মো. কেফায়েত উল্লাহ আরকান, কার্যনির্বাহী সদস্য মো. হানিফুল ইসলাম চৌধুরী, মহানগর সভাপতি মো. ইমাম হোসেন রাসেল, শিল্পী শিউলি আকতার, নুরুল ইসলাম, আবদুল মান্নান, নজরুল ইসলাম, সোহেল রানা প্রমুখ।
চট্টগ্রাম উন্নয়ন ফাউন্ডেশন
মহানগরীর চকবাজার, বহাদ্দারহাট, আন্দরকিল্লা, কোতোয়ালী, সিআরবিসহ বিভিন্ন স্থানে চট্টগ্রাম উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে সচেতনতামূলক লিফলেট, সাবান, স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করা হয়।
উক্ত কর্মসূচির উদ্বোধন করেন সংগঠনের চেয়ারম্যান লায়ন ডা. আর.কে রুবেল।
মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডা. এস.কে পাল সুজন, ডা. অপূর্ব ধর, ডা. বেলাল হোসেন উদয়ন, ডা. এস.এম কামরুজ্জামান, ডা. কানু দাশ, ডা. তড়িৎ মহাজন প্রমুখ।
এতে লায়ন ডা. আর.কে রুবেল বলেন, বৈশ্বিক মহামারীর তা-বে দেশ আজ পর্যুদস্ত। করোনা মহামারীর দ্বিতীয় ধাপে দেশে বর্তমানে মৃত্যুর হার দিন দিন বাড়ছে। এ অবস্থায় পরিবার পরিজন ও দেশের মানুষকে সচেতন ও নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা বিকল্প নেই। প্রত্যেক নাগরিককে সরকারি নিদের্শনা মেনে চলার জন্য ও সংক্রমিত হবার আগে প্রাথমিক চিকিৎসা সরঞ্জাম এ্যাম্বুলেন্স, হাসপাতালসহ জরুরি সেবার ফোন নম্বর সংগ্রহ করে রাখার জন্য অনুরোধ জানান তিনি। পাশাপাশি ডাক্তার ও বেসরকারি ক্লিনিক সমূহকে মানবিক বিবেচনায় যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানান।
তারুণ্যের প্রতীক বাংলাদেশ
করোনাভাইরাস প্রতিরোধে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধকরণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে প্রথম দিনের মতো বহদ্দারহাট কাঁচা বাজার, ২ নম্বর গেইট, মুরাদপুর, চকবাজারসহ বিভিন্ন স্থানে জনসচেতনতামূলক প্রচার ও মাস্ক বিতরণ কর্মসূচি করেছেন সামাজিক সংগঠন তারুণ্যের প্রতীক বাংলাদেশ।
প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি জি.এম তাওসীফ বলেন, দ্বিতীয় দফায় করোনা পরিস্থিতিতে পথচারীদের জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে মাস্ক ব্যবহারে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।
জনসাধারণের মাঝে বিনামূল্যে মাস্কসহ স্বাস্থ্যসুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বোর্ড সদস্য কবির আহম্মেদ আজাদ, অভিজিৎ বড়ুয়া, সহ সভাপতি ফারদিন আলী খান, ইফতেখার রাফি, ফজলে এলাহী, সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ খান সাকিব, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আল হাসনাত দিপন, সম্পাদকম-লীর সদস্য নাজমুল হক হৃদয়, কামরুল হোসাইন, সাইমুন ইসলাম, নিলয় ভট্টচার্য্য, শহিদুল ইসলাম, রায়হান চৌধুরী রাফা, শহিদুল্লাহ্ কাউছার, আবু সায়েদ আলভী, সদস্য মফিজুল খায়ের সাকিব, তানভীর আহমেদ, রাইয়ান নুর, জিহান, সোহান সহ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি