৪৫ মামলায় ১৯ হাজার টাকা জরিমানা

0
54

জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত

নিজস্ব প্রতিবেদক »

নগরীতে মাক্স পরিধান শতভাগ কার্যকরে দিনভর জেলা প্রশাসনের ১২ টিম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে। এতে ৪৫ মামলায় ১৯ হাজার ১৯০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নগরীর পাহাড়তলী হালিশহর, আকবরশাহ, পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর, পাঁচলাইশ, বাকলিয়া, চকবাজার, কোতোয়ালী, সদরঘাট, ডবলমুরিং, খুলশী , বায়েজিদ ও চান্দগাঁও এলাকায় এসব অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.সোহেল রানা নগরীর পাহাড়তলী হালিশহর ও আকবরশাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ৬ মামলায় মোট ১৭০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এহসান মুরাদ পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে ৫ টি মামলায় ৪৪০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাছান পাহাড়তলী হালিশহর ও আকবরশাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে ১ টি মামলায় ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী নগরীর পাঁচলাইশ বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ১০ মামলায় ৭৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নগরীর পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গালিব চৌধুরী মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সময় ৪ টি মামলা দায়ের করে মোট ১৬০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন নগরীর কোতোয়ালী সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ৪ মামলায় ৩০০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন। নগরীর খুলশী বায়েজিদ ও চান্দগাঁও এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা আফরোজ মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে ৬ মামলায় ২৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নগরীর কোতোয়ালী সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুরাইয়া ইয়াসমিন ২ মামলায় ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হুছাইন মুহাম্মদ নগরীর পাঁচলাইশ বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে ৩ মামলায় ৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন। এছাড়া নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোনিয়া হক নগরীর খুলশী বায়েজিদ ও চান্দগাঁও এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৪ মামলায় মোট ৮৫০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।