৩২ কোটি রুপি পারিশ্রমিক আল্লু অর্জুনের

0
89

সুপ্রভাত ডেস্ক :
কন্নড় সুপারস্টার আল্লু অর্জুনের কথা সবার জানা। ১৯৮৫ সালে ‘বিজেতা’ নামক সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্র জগতে যাত্রা শুরু তার। এরপর একে একে বেশ কিছু জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়ে দর্শকের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছেন।
পারিশ্রমিকেও পরিবর্তন এসেছে ব্যাপক। দিন কয়েক আগে ভারতের বেশ কিছু গণমাধ্যম দক্ষিণের সুপারস্টারদের পারিশ্রমিক নিয়ে প্রতিবেদন ছাপে। যেখান থেকে আল্লুর বর্তমান পারিশ্রমিক নিয়ে বেশ স্পষ্ট একটি ধারণা পাওয়া যায়।
দক্ষিণের শীর্ষস্থানীয় সিনেমার পরিচালক আল্লু আরিভিন্দর ছেলে আল্লু অর্জুনের সিনেমায় যাত্রা শুরু সেই ১৯৮৫ সাল থেকে। তবে কেন্দ্রীয় অভিনেতা হিসেবে সর্বপ্রথম ২০০৩ সালে ‘গ্যাংওরতি’ নামক একটি সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। এখন পর্যন্ত মোট ১৬টি চলচ্চিত্রে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন আল্লু।
২০১৪ সালের ‘রেইস গুররাম’ সিনেমায় অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তেলেগু সিনেমার সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেতাদের তালিকায় জায়গা করে নেন আল্লু। এরপর থেকে প্রতিটি সিনেমায় অভিনয়ের জন্য ১০ থেকে ১২ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন দক্ষিণের এই জনপ্রিয় অভিনেতা।
তবে গত বছর ‘আলা বৈকুন্ঠপুরামলো’ সিনেমার অসাধারণ সাফল্যের পর এই পারিশ্রমিক দ্বিগুণ করে নেন। বর্তমানে যে কোনো সিনেমায় অভিনয় করতে ৩০-৩২ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন তিনি।
প্রসঙ্গত, করোনার দীর্ঘ বিরতির পর আবারও বড় পর্দায় ফিরছেন আল্লু। মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা ‘পুষ্প’। সিনেমাটিতে আল্লু ব্যতীত আরও অভিনয় করেছেন চরিত্রে রেশমিকা মন্দানা, বিজয় সেতুপতি, প্রকাশ রাজ ও জগপতি বাবু এবং সহযোগী চরিত্রে হরিশ উথামান, বেন্নেলা কিশোর এবং অনসূয়া ভরদ্বাজ। খবর : জাগোনিউজ’র।