১৩০ টাকার স্যানিটাইজার ৪০০ টাকা, জরিমানা আদায়

0
293
bdr

নিজস্ব প্রতিবেদক :
তিনগুণ বেশি দামে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিক্রির চেষ্টা করায় এক ফার্মেসিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা গুণতে হয়েছে। এছাড়াও সাত প্রতিষ্ঠানকে ৫৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।
শনিবার (৪ জুলাই) সকাল ১০ টায় নগরীর চান্দগাঁও ও বায়েজিদ থানা এলাকায় বাজার তদারকি অভিযান চালায়।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ, সহকারী পরিচালক (মেট্রো) পাপীয়া সুলতানা লীজা এবং জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান অভিযান পরিচালনা করেন।
অভিযানের এক পর্যায়ে নগরীর মোহরা এলাকায় এক ভোক্তা ১৩০ টাকার হ্যান্ড স্যানিটাইজার ৪০০ টাকা বিক্রির প্রস্তাবের অভিযোগ করেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এম আলম ফার্মেসিকে জরিমানা সংস্থাটি জরিমানা করে।
জানা যায়, মেয়াদউত্তীর্ণ পণ্য রাখায় চান্দগাঁও থানার কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় জিবিয়া স্টোরকে ৭ হাজার, ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টসকস মেয়াদউত্তীর্ণ দই ও কোমল পানীয় রাখায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে। পরে ২০ কেজি দই ও কোমল পানীয় ধ্বংস করা হয়।
অননুমোদিত এনার্জি পানীয় রাখায় হাসান বেকারিকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা ছাড়াও উৎপাদিত বেকারি পণ্যে উৎপাদন, মেয়াদ ও খুচরামূল্য না দেয়ায় ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া বায়েজিদ থানার ওয়জেদিয়া চৌরাস্তা এলাকায় মেয়াদবিহীন কাটা ওষুধ সংরক্ষণ করায় কেয়ার মেডিক্যাল হলকে ২ হাজার জরিমানা করে ওষুধ ধ্বংস করা হয়। তাছাড়া নেজামে হাসনা এলাকার ইমরান অ্যান্ড ব্রাদার্সকে মেয়াদবিহীন মোড়কজাত দুধ ও মেয়াদউত্তোর্ণ খাদ্যপণ্য সংরক্ষণের জেরে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে।
অন্যদিকে ভোক্তা অধিকারের অভিযানে নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে পণ্য ক্রয়, মাস্ক-গ্লাভস পরিধান করতে নাগরিকদের সচেতন করেন। একইসাথে কোনো বিক্রেতা অধিক মূল্যে পণ্য, ওষুধ বিক্রয় করলে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের হটলাইন নম্বর ১৬১২১ যোগাযোগ করতে বলা হয়।
ভোক্তা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা সুপ্রভাতকে বলেন, বাজার তদারকির সময়ে বিভিন্ন অসঙ্গতি বিবেচনায় ভোক্তা অধিকার আইন-২০০৯ এর বিভিন্ন ধারায় এসব জরিমানা করা হয়। এর পাশাপাশি অতিরিক্ত দামে পণ্য বিক্রি হলে হটলাইনে যোগাযোগ করে অভিযোগ করতে বলেছি।