সকল জেলায় আয়োজন হবে পিঠা-পুলির উৎসব

203

উদ্বাধনী অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, বাঙালির হাজার বছরের ইতিহাসের সঙ্গে মিশে আছে নিজস্ব খাদ্যাভ্যাস। যার একটি স্বতন্ত্র অনুষঙ্গ পিঠা-পুলি। বর্তমানে বিভাগীয় শহরগুলোতে এ পিঠা-পুলির উৎসব হচ্ছে। আগামী বছর থেকে প্রতি জেলায় পিঠা-পুলির উৎসব করা হবে।
প্রতিমন্ত্রী গতকাল বুধবার নগরের এম এ আজিজ আউটার স্টেডিয়ামে আয়োজিত পিঠা-পুলির উৎসব উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামে এই প্রথম পিঠা প্রদর্শনী ও বিক্রয়ের উৎসব শুরু হচ্ছে। জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে হচ্ছে এ পিঠা প্রদর্শনী। এ মাঠে বইমেলা শুরু হবে জেনে বইমেলার সাফল্যও কামনা করেন প্রতিমন্ত্রী।
চট্টগ্রামে এ প্রথম পিঠা উৎসব। এতে দেখা মিলবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ২০০ ধরনের পিঠা। ৫ দিনব্যাপী এ উৎসবের আয়োজক জাতীয় পিঠা উৎসব উদযাপন পরিষদ ও জেলা ক্রীড়া সংস্থা।
পিঠা উৎসব উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক মো. লিয়াকত আলী লাকী, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নাট্যজন ম. হামিদ।
প্রতিদিন বিকাল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত পিঠা উৎসব চলবে। এর পাশাপাশি সাংস্কুতিক অনুষ্ঠান হবে। এতে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বাংলাদেশ বেতারের শিল্পীরা অংশ নেবেন। বিজ্ঞপ্তি