শাহরুখ-কাজলকে বিরল সম্মান লন্ডন প্রশাসনের

0
162

সুপ্রভাত ডেস্ক :
সিমরনের প্রেমের টানে সুদূর লন্ডন থেকে পাঞ্জাব পর্যন্ত চলে এসেছিল রাজ। হলুদ ফুলে ভরা সর্ষের ক্ষেতে প্রেমিকার জন্য বাহু প্রসারিত করেছিল। এক হাতে ছিল ম্যান্ডোলিন, অন্য হাতে টুপি। দৌড়ে এসে প্রেমিকের বুকে নিজেকে সঁপে দিয়েছিল সিমরন। এভাবেই সৃষ্টি হয়েছিল রুপোলি পর্দার সবচেয়ে রোম্যান্টিক ইতিহাস। ‘দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে জায়েঙ্গে’। প্যানডেমিকের আগেও মারাঠা মন্দিরে দর্শকরা দেখতে গিয়েছেন শাহরুখ-কাজল জুটির রসায়ন। ছুটির দিন টেলিভিশনের পর্দায় বারবার ফিরে আসে ডিডিএলজে-র নস্টালজিয়া। সেই নস্টালজিয়াকে সম্মানিত করতে চলেছে ব্রিটিশ সরকার। লন্ডনের বিখ্যাত লেইসেস্টার স্কোয়ারে রাজ-সিমরনের বেশে শাহরুখ খান এবং কাজলের ব্রোঞ্জ মূর্তি বসানো হবে।
নয়ের দশকে লন্ডনের বিভিন্ন জায়গায় আদিত্য চোপড়ার পরিচালনায় ‘দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে জায়েঙ্গে’র শুটিং করেছিলেন শাহরুখ ও কাজল। সেই স্মৃতিকে সম্মান জানিয়েই ব্রোঞ্জের মূর্তিটি তৈরি করা হবে। এই প্রথম কোনও ভারতীয় সিনেমাকে সম্মান জানিয়ে এমন উদ্যোগ নেওয়া হল। জানা গিয়েছে, ২০২১ সালের মাঝামাঝি ব্রোঞ্জের এই মূর্তিটি উন্মোচন করা হবে।
১৯৯৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘দিলওয়ালে দুলহনিয়া লে জায়েঙ্গে’। শাহরুখ এবং কাজলের কেরিয়ারের ভিত গড়ে দিয়েছিল এই সিনেমা। ছবির প্রত্যেকটি দৃশ্য আইকনিক হয়ে যায়। শাহরুখ-কাজলের পাশাপাশি জনপ্রিয় হয় অমরীশ পুরী, ফরিদা জালাল, অনুপম খের, সতীশ শাহ, মন্দিরা বেদী, অর্চনা পূরণ সিং, পরমীত শেঠির চরিত্র। বিশ্বের বিনোদন জগতে ভারতীয় সিনেমার জনপ্রিয়তা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। সেই অনুপ্রেরণাতেই এই মূর্তিটি তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছেন মূর্তি তৈরির অন্যতম উদ্যোক্তা মার্ক উইলিয়ামস। তার মতে, এই মূর্তি সারা বিশ্বের বিনোদন জগতের ঐক্যের প্রতীক হয়ে উঠবে। পাশাপাশি হয়ে উঠবে ভালবাসার প্রতীক। খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।