বিতর্কের মাধ্যমে জ্ঞান অর্জন করে তরুণরা এগিয়ে যাবে

0
30

দৃষ্টির আন্তঃ ক্লাব বিতর্ক প্রতিযোগিতা

‘মুক্তবুদ্ধি চর্চার মাধ্যমে সুনাগরিক তৈরি হয়, যাদের অন্তর্দৃষ্টি বাংলাদেশের অবস্থানকে আরো উপরে নিয়ে যাবে, তথা সুন্দর বাংলাদেশ গড়ে তুলবে। তাদের ভালোবাসা শুধুমাত্র মুখে সীমাবদ্ধ থাকবেনা, তাদের ভালোবাসা কাজের মধ্যে প্রকাশ পাবে।’
চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে দৃষ্টি চট্টগ্রামের আয়োজনে ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সহযোগিতায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মহান স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছর পূর্তিতে ‘মুজিবর্ষে যুক্তি তর্কে তারুণ্য’ শিরোনামে আন্তঃক্লাব বিতর্ক ও বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতার সমাপনীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম এসব কথাগুলো বলেন। দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের প্রধান নির্বাহী ও জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. বিদ্যুৎ বড়–য়া, তরুণ শিল্প উদ্যোক্তা সৈয়দ জালাল আহমেদ রুম্মান ও চলচ্চিত্র নির্মাতা রিফাত মোস্তফা টিনা।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন দৃষ্টি চট্টগ্রামের সহ- সভাপতি বনকুসুম বড়–য়া নুপুর, শহীদুল ইসলাম হিরু, সাধারণ স¤পাদক সাবের শাহ, প্রতিযোগিতার সমন্বয়কারী মুন্না মজুমদার, দৃষ্টি চট্টগ্রামের উপ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন মজুমদার, হোসাইন সামী ও দৃষ্টির সদস্য আরিফুল ইসলাম আসিফ।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম আরো বলেন, বিতর্কের মাধ্যমে জ্ঞান অর্জন করে তরুণরা বিজয়ের চেতনাকে ভবিষ্যতে এগিয়ে নিয়ে যাবে।
প্রতিযোগিতায় চট্টগ্রামের ১৮টি ক্লাব এর বিতর্ক দল অংশগ্রহণ করছে। অংশগ্রহণকারীরা হলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অব ডিবেট, চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি, পোর্ট সিটি ইউনিভার্সিটি ডিবেট ফোরাম, আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম ডিবেটিং কমোনিটি, এফসেট ডিবেট ক্লাব, ইউএসটিসি, ইউএসটিসি ফার্মাডি বেট ক্লাব, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ডিবেটিং ক্লাব, সাদার্ন বিশ্ববিদ্যালয় ডিবেটিং সোসাইটি, ইস্ট ডেল্টাবিশ্ববিদ্যালয়ডিবেটিং সোসাইটি, চট্টগ্রাম কলেজ ইসিএ ক্লাব, কমার্স কলেজ ডিবেটিং সোসাইটি, বাংলাদেশ নৌবাহিনী স্কুল ও কলেজ ডিবেটিং সোসাইটি, মহসিন কলেজ ডিবেটিং ক্লাব, বাকলিয়া সরকারি কলেজ ডিবেটিং সোসাইটি, পাবলিক এডমিনিস্ট্রেশন ডিবেট ফোরাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। একই সাথে চট্টগ্রামের ১৬টি স্কুলের ১০০ জন শিক্ষার্থী বারোয়ারি বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। বিজ্ঞপ্তি