পেঁয়াজের দাম চড়ছে…

287

থেমে গেছে ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযান

সংকট নিরসনে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের টিম এসেছে চট্টগ্রামে

সালাহ উদ্দিন সায়েম :

পাইকারিতে আরও চড়ছে পেঁয়াজের দাম। খাতুনগঞ্জের আড়তে  শনিবার ভারতীয় পেঁয়াজের কেজি ছিল ৩৫-৩৬ টাকা। এক দিনের ব্যবধানে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় কেজি প্রতি ২ টাকা দাম বেড়েছে। আজ সোমবার থেকে পেঁয়াজের দাম আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন খাতুনগঞ্জের আড়তদাররা।

পাইকারিতে ৩৫-৩৬ টাকা কেজি দরে বিক্রি হলেও খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকা। পাইকারি মূল্যের সাথে খুচরা বাজারে কেজি প্রতি ১৫ টাকার ব্যবধান।

খাতুনগঞ্জের আড়তদাররা বলছেন, দেশের পেঁয়াজের বাজার এখন কেবল ভারতের ওপর নির্ভরশীল। মিয়ানমার থেকে এখন পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে না। কিন্তু দক্ষিণ ভারতে সম্প্রতি বন্যার কারণে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় এর প্রভাব বাংলাদেশে পড়েছে।          এক সপ্তাহ আগেও দেশে প্রতিকেজি পেঁয়াজের পাইকারি দাম ছিল ২৫ টাকা। কিন্তু ভারতে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়াতে কয়েক দিনের ব্যবধানে বাংলাদেশে পাইকারি বাজারে মূল্য বেড়ে যায়। আমদানিকারকদের নির্দেশে কমিশন এজেন্ট ও আড়তদাররা পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দেয়।

দক্ষিণ ভারতে বন্যার কারণে পেঁয়াজের দাম চড়লেও বাংলাদেশে সরবরাহ কমেনি। খাতুনগঞ্জে প্রতিদিন গড়ে ১৫ ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ ঢুকছে। আমদানিকারকরা বাড়তি দামে ক্রয় করার কারণে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে বলে জানিয়েছেন কমিশন এজেন্ট ও আড়তদাররা।

খাতুনগঞ্জে মেসার্স রাসেল অ্যান্ড সন্সের আড়তদার মোহাম্মদ রাসেল সুপ্রভাতকে বলেন, দেশের পেঁয়াজের বাজার এখন ভারতের ওপর নির্ভরশীল। দক্ষিণ ভারতে বন্যার কারণে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। এর প্রভাব পড়েছে ুদেশে। আমদানিকারকদের সাথে কথা বলে জেনেছি, এ সপ্তাহে দাম আরও বেড়ে যাবে। কারণ ভারতে নাকি পেঁয়াজের দাম আরো বাড়ছে। পেঁয়াজের দাম ২৫ থেকে একলাফে ৫০টাকা বেড়ে গেলে গত রোববার খাতুনগঞ্জের পাইকারি আড়তে হানা দেয় জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে পেঁয়াজের ১০টি আড়তকে ৭২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এর জের ধরে পরদিন পেঁয়াজের আড়তে ধর্মঘটের ডাক দেন ব্যবসায়ীরা। রাস্তায় নেমে বিক্ষোভও করেন তারা। প্রশাসনকে হুংকার দিয়ে  পর দিন থেকে আগের মূল্যে আবার বেচাকেনা শুরু করেন তারা।

আড়তদারদের ‘হুংকারে’ গত এক সপ্তাহ ধরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান বন্ধ রেখেছে জেলা প্রশাসন।

জানা গেছে, পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি নিয়ে সংকট নিরসনে খাতুনগঞ্জের আড়তদারদের সাথে বৈঠক করতে গতকাল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি টিম এসেছে চট্টগ্রামে। তারা আজ সোমবার কিংবা মঙ্গলবার খাতুনগঞ্জের পেঁয়াজের আড়তদারদের সাথে জেলা প্রশাসনে বৈঠক করবেন। জানতে চাইলে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ড. বদিউল আলম সুপ্রভাতকে বলেন, খাতুনগঞ্জের পেঁয়াজের আড়তদারদের বিক্ষোভের কারণে আমরা আপাতত অভিযান বন্ধ রেখেছি। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি টিম এসেছে খাতুনগঞ্জের ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক করতে। বৈঠকের পর আমরা অভিযানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবো।