পিবিআইয়ের হেফাজতে বাবুল আক্তার

231

মিতু হত্যা মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক  <
মাহমুদা খানম মিতু হত্যা মামলায় তার স্বামী সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলে নিশ্চিত করেছে তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে পিবিআইয়ের হেফাজতে রয়েছেন পুলিশের সাবেক এই কর্মকর্তা।
এর আগে সোমবার রাতে মিতু হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য এ সাবেক এ পুলিশ কর্মকর্তাকে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেওয়া হয় পিবিআই চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ে। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে মামলার তদন্তভার প্রাপ্ত তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক (মেট্রো) সন্তোষ কুমার চাকমাসহ ঊর্ধ্বতন পর্যায়ের একটি টিম বিভিন্ন বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তাকে।
এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, ‘এ মামলার বাদি বাবুল আক্তার। তিনি মামলার অগ্রগতি জানতে আমাদের কাছে এসেছিলেন। এজন্য তিনি ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে এসেছেন।’
তবে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তর জানতে পুলিশের একাধিক কর্মকর্তার সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি পিবিআই’র হেফাজতে রয়েছেন। পুলিশ এখনো তাকে গ্রেফতার দেখায়নি।
২০১৬ সালের ৫ জুন সকালে নগরের পাঁচলাইশ থানার ও আর নিজাম রোডে গুলি ও ছুরিকাঘাত করে খুন করা হয় মিতুকে। এ ঘটনায় তার স্বামী বাবুল আক্তার বাদি হয়ে পাঁচলাইশ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। প্রথম থেকে এ মামলা তদন্ত করেন চট্টগ্রাম ডিবি পুলিশ। কিন্তু তিন বছরে মিলেনি কোনো রিপোর্ট। পরবর্তীতে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে আদালত এ মামলার দায়িত্ব দেয় পিবিআইকে । তবে হত্যাকাণ্ডের জন্য বাবুল আক্তারকে দায়ী করে আসছে মিতুর পরিবার।