নুরুল আলম চৌধুরী ছিলেন ত্যাগী নেতা

124

উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের স্মরণসভা

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সংগঠনের সাবেক সভাপতি, সাবেক রাষ্ট্রদূত নুরুল আলম চৌধুরীর ২য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভা নগরীর দোস্ত বিল্ডিংয়ের দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ সালামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি।
জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো. জসীম উদ্দিন শাহ’র সঞ্চালনায় স্মরণসভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শেখ মো. আতাউর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক মো. মঈনুদ্দিন, মো. আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জসীম উদ্দিন, খাদিজাতুল আনোয়ার সনি এমপি, মহিউদ্দিন বাবলু, বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার, জাফর আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার মেসবাহ উল আলম লাভলু, নাজিম উদ্দিন তালুকদার, আখতার উদ্দিন মাহমুদ পারভেজ, বখতেয়ার সাঈদ ইরান, ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন মুহুরী,যুবলীগ নেতা শেখ ফরিদ চৌধুরী, উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন তপু, সাধারণ সম্পাদক মো. রেজাউল করিম ও মরহুমের সন্তান জেলা আওয়ামী লীগ নেতা হাসিবুন সুহাদ চৌধুরী শাকিব প্রমুখ।
সভায় প্রধান অতিথি ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি বলেন, ‘জননেতা নুরুল আলম চৌধুরী তৃণমূল থেকে উঠে আসা প্রকৃত কর্মীবান্ধব একজন ত্যাগী নেতা ছিলেন। প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তিনি রাজপথে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন। তাঁর মতো প্রতিবাদী এবং আদর্শিক নেতার বর্তমানে বড়ই অভাব।
তিনি রাজনীতিকে ব্যবসা হিসেবে নেননি, রাজনীতিকে ব্রত হিসেবে নিয়েছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত স্পষ্টবাদী ও পরীক্ষিত একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শিক নেতা হিসেবে তাঁর জীবন থেকে শিক্ষা গ্রহণ করে নতুন প্রজন্মকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। বিজ্ঞপ্তি