জেলহত্যা দিবসের আলোচনা সভা : জাতীয় চার নেতার আদর্শ ধারণ করতে হবে

0
171

জাতীয় চারনেতা ছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অবিচল। লোভ, অহংকার, ক্ষমতার মোহ ও অর্থ-বিত্ত কিঞ্চিৎ পরিমাণও আদর্শচ্যুত করতে পারেনি তাঁদের। জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত জাতীয় চারনেতা সংগ্রাম করেছেন বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন শোষণমুক্ত সোনার বাংলা গড়তে। জাতীয় চারনেতার আদর্শ বুকে ধারণ করে জাতির জনকের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ও সোনার বাংলাদেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা মৎস্যজীবী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত জেল হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান একথা বলেন। দক্ষিণ জেলা আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগের উদ্যোগে নগরীর মোমিন রোডস্থ চট্টগ্রাম একাডেমি মিলনায়তনে জেল হত্যা দিবস স্মরণে আলোচনা সভা সংগঠনের আহ্বায়ক সৈয়দ আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে মফিজুর রহমান বলেন ক্ষমতা ও পদ-পদবীর নানা সুযোগ পেলেও চুল পরিমাণও আদর্শচ্যুত হননি জাতীয় চারনেতা। বর্তমান সময়ে জাতীয় চারনেতার মতো নীতি ও আদর্শবান নেতার আজ বড় প্রয়োজন ছিল। তাঁদের জীবনাদর্শ অনুসরণ করে এগিয়ে গেলে জাতীয় চারনেতার স্মরণ যথার্থ হবে।
সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম, কেন্দ্রীয় মৎস্যজীবী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এম.এ গাফফার কুতুবী, জননেত্রী শেখ হাসিনা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হাবিব উল্লাহ, কেন্দ্রীয় সদস্য লে. (অব.) ইলিয়াস কমরু, মৎস্যজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এম.এ মোতালেব তালুকদার।
সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক সুরেশ দাশের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ জেলা মৎস্যজীবী লীগের সদস্য নজরুল ইসলাম মোস্তাফিজ, সঞ্জয় সরকার, হানিফুল ইসলাম চৌধুরী, একরামুল হক বাবুল, মহানগর সদস্য মাজহারুল হক চৌধুরী মিরু, পটিয়া উপজেলা আহ্বায়ক মো. সাইফুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক রুপক শীল, মো. ইদ্রিস, ছোটন সরকার, সদস্য শাহজাহান, মাহফুজ খান, সজল দাশ, সোমা মুৎসুদ্দী, বাবুল দাশ, রতন চক্রবর্তী প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি