ক্যান্ডিসহ আট প্রতিষ্ঠানকে এক লাখ ৬৭ হাজার টাকা জরিমানা

0
285
dav

নিজস্ব প্রতিবেদক :
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ফ্রিজে খাদ্য সংরক্ষণ, বাসি খাবার, মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য ও অননুমোদিত কোমল পানীয় রাখায় নগরের ৮ প্রতিষ্ঠানকে ১ লাখ ৬৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার নগরের আকবরশাহ ও চকবাজার থানায় এ অভিযান পরিচালনা করে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মোহাম্মদ ফয়েজ উল্যাহ, সহকারী পরিচালক (মেট্রো) পাপিয়া সুলতানা লিজা ও জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ হাসানুজ্জামানের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
অভিযানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে ফ্রিজে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ, রান্নাকরা মাংস পলিথিন ব্যাগে সংরক্ষণ, ময়লাপাত্রে খাদ্যোপকরণ রাখায় চকবাজার থানার জিইসি মোড়ের ক্যান্ডিকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করে সার্বিক পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়। এশিয়ান কাবাবকে খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণে সংবাদপত্র ব্যবহার ও কিচেনে নোংরা পানি জমে থাকায় ৬ হাজার টাকা, অফটাইম স্ন্যাক্সকে উৎপাদন ও মেয়াদবিহীন পণ্য সংরক্ষণ করায় ৫ হাজার টাকা, ইয়াম স্টোরকে মেয়াদবিহীন পণ্য সংরক্ষণ ও মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যদ্রব্য সংরক্ষণ করায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া আকবরশাহ থানার ফয়’স লেকের লাকী হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টকে অননুমোদিত কোমল পানীয় সংরক্ষণ করায় ৮ হাজার টাকা, মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করে বেশি দামে ভোক্তাদের নিকট খাদ্যদ্রব্য বিক্রি করায় ফ্রেশ ফুড কর্নারকে ৮ হাজার, গোল্ড হিলকে ১০ হাজার ও আশা রেস্টুরেন্টকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহায়তায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।