‘আরও ৪ হাজার রান বেশি করতে পারতাম’

0
297

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
১৭৬ ইনিংসে ৪৭.৫৫ গড়ে ৮২২৭ রান। ক্রিকেটের ৫০ ওভারের ফর্ম্যাটে সবচেয়ে সফল জুটির পরিসংখ্যান তুলে ধরে মঙ্গলবার একটি টুইট করে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা। ওয়ানডে ফরম্যাটে অন্য কোনও জুটি এরপর সর্বসাকুল্যে ৬ হাজারের গন্ডিও পেরোতে পারেনি। স্বাভাবিকভাবেই জুটিতে শচীন রমেশ তেন্ডুলকার ও সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ঈর্ষনীয় পার্টনারশিপ রেকর্ড আজও অক্ষত।
আইসিসি’র টুইট দেখে তাই হঠাৎই স্মৃতির সরণি বেয়ে পুরনো দিনগুলোয় ফিরে গিয়েছিলেন মাস্টার-ব্লাস্টার। আইসিসি’র টুইটের পালটা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে ট্যাগ করে শচীন বলেন, ‘অনেক স্মৃতি ভিড় করে আসছে দাদা।’ একইসঙ্গে বিসিসিআই প্রেসিডেন্টকে একটা চ্যালেঞ্জিং প্রশ্নও ছুঁড়ে দেন তিনি। সৌরভকে তিনি জিজ্ঞেস করেন, ‘তোমার কী মনে হয়, বৃত্তের বাইরে ৪ জন ফিল্ডার এবং দু’টো নতুন বলে খেলা হলে আমরা জুটিতে আরও কত রান যোগ করতে পারতাম।’
সাম্প্রতিক সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সক্রিয় মহারাজ কিন্তু প্রিয় ছোটবাবুর প্রশ্নের উত্তর দিতে দেরি করেননি। শচীনের প্রশ্নের উত্তরে পালটা সৌরভ লেখেন, ‘আরও ৪ হাজার রান তো বটেই কিংবা তারও বেশি। দু’টো নতুন বল দুর্দান্ত মনে হচ্ছে ম্যাচের প্রথম ওভারেই একটা কভার ড্রাইভে বল বাউন্ডারির সীমানা পার করে গেল, বাকি ৫০ ওভারেও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি।’ অর্থাৎ আধুনিক ক্রিকেটের নিয়ম যদি তাদের সময় বলবৎ থাকত তবে জুটিতে ১২-১৩ হাজার রান করে থামতেন দু’জনে। এমনটাই জানিয়েছেন মহারাজ।
বিদেশের মাঠে কোনও এক ম্যাচে শচীন এবং সৌরভের পার্টনারশিপের একটি মুহূর্তের ছবি মঙ্গলবার নিজেদের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে পোস্ট করে আইসিসি। ছবি পোস্ট করে ক্যাপশন হিসেবে আইসিসি তুলে ধরে দু’জনের ব্যাটিং পরিসংখ্যান। তারা লেখে, ‘একদিনের ক্রিকেটে শচীন টেন্ডুলকার এবং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। পার্টনারশিপ-১৭৬, রান-৮২২৭, গড় ৪৭.৫৫। একদিনের ক্রিকেটে আর অন্য কোনও জুটি ৬ হাজার রানের গন্ডিও টপকাতে পারেনি।’
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।