অক্ষয়ের কারণে রেখাকে হুমকি দেন রবিনা

0
290

সুপ্রভাত ডেস্ক :
বলিউডে কান পাতলেই নানা গুঞ্জন কানে আসে। এমনও কিছু ঘটনা নাকি ঘটে, যা বিশ্বাস করাটাই বেশ কঠিন হয়ে পড়ে। তেমনই একটি ছিল বলিউডের ডিভার সঙ্গে আক্কির বিশেষ সম্পর্ক। বলিউডের এন্ডলেস বিউটি তিনি। ব্যক্তিগত জীবনও বার বার এসেছে আতসকাচের তলায়। রেখা নামটির সঙ্গেই জড়িয়ে গিয়েছে একাধিক সম্পর্কের গুঞ্জন। তার সঙ্গে নাকি অক্ষয় কুমারেরও সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল। ১৯৯৪-১৯৯৫ এই সময়ে বলিউডের অন্যতম চর্চিত জুটি ছিলেন রবিনা ট্যান্ডন এবং অক্ষয় কুমার। রবিনার পরনে হলুদ শাড়ি। সেই শাড়িতে বৃষ্টিভেজা অভিনেত্রী নাচে মাত করেছিলেন। অক্ষয়ের সঙ্গে নায়িকার জনপ্রিয় গান ‘টিপ টিপ বরসা পানি’ আজও একইরকম জনপ্রিয় দর্শকদের কাছে।
এই গানের পর অভিনেত্রীর ভক্ত সংখ্যা বেড়ে গিয়েছিল অনেকটাই। পেজ থ্রি-তে সবসময়ই তিনি। কিন্তু মন ভাল ছিল না অভিনেত্রীর। বলিউডের খিলাড়ির প্রেমে তখন রবিনা পাগল। অন্য কোনও নায়িকার সঙ্গে প্রিয় মানুষের ঘনিষ্ঠতা হবে আর পাঁচ জনের মতো তিনিও সেটা মেনে নিতে পারেননি।
অক্ষয়ের সঙ্গে রবিনার প্রেম তখন বেশ চর্চার বিষয়। আচমকাই সেই প্রেম চলাকালীন রেখার সঙ্গে নাম জড়ায় অক্ষয় কুমারের। অনেকে বিশ্বাসই করতে পারেননি। কিন্তু ‘মোহরা’ অভিনেত্রী পরবর্তীকালে সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছিলেন এ কথা। ১৯৯৬ সালের কথা। ‘খিলাড়িও কা খিলাড়ি’ ছবির শুটিং চলছে। সেই সময় অক্ষয়ের সঙ্গে রেখার সম্পর্কের কানাঘুঁষো শুরু হয়।
বলিউডের নানা পত্রপত্রিকায় তখন রেখার সঙ্গে অক্ষয়ের সম্পর্কের গুঞ্জন নিয়ে খবর বেরিয়েছিল। সোশাল মিডিয়া ছিল না তখন। কিন্তু ঘনিষ্ঠ জনদের থেকে সে কথা পৌঁছে যায় রবিনার কাছেও। রবিনার কানে খবর পৌঁছতেই মারাত্মক ক্ষুব্ধ হন তিনি। রবিনা অভিযোগ করেন, তার ও আক্কির সম্পর্কের কথা জেনেও অক্ষয়ের সঙ্গে নাকি রেখা সম্পর্ক তৈরি করেছিলেন। রবিনার দাবি ছিল, অক্ষয়ের কোনও দোষই নেই। সবটাই নাকি রেখার দোষ। রেখাই নাকি অক্ষয়ের প্রেমে পাগল। ১৯৯৯ সালের একটি সাক্ষাৎকারে রেখাকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন রবিনা। রেখা নাকি অক্ষয় কুামরের প্রেমে পাগল ছিলেন, রবিনা দাবি করেন এমনটাই। তাকে রীতিমতো সতর্ক করে আক্কির থেকে দূরে থাকার কথাও বলেন।
তবে রেখার সঙ্গেও অক্ষয়ের সম্পর্ক মজবুত হয়নি। এ দিকে যাকে বিয়ে করার কথা ভেবেছিলেন অক্ষয়, সেই রবিনার সঙ্গেও তার সম্পর্ক টিকল না। তবে রেখা বা অক্ষয় এই সপ্র্ক নিয়ে কোনও দিনই কিছু বলেননি। সেই সময় অক্ষয়ের নাম জড়িয়ে পড়ে শিল্পা শেট্টির সঙ্গে। অক্ষয়ের সঙ্গে শিল্পার নাকি অফ স্ক্রিন রোম্যান্স শুরু হয়ে গিয়েছে তখন। তার সঙ্গে অন স্ক্রিন রোম্যান্সে শিল্পাকে পছন্দ করতে শুরু করেন দর্শক। রবিনার সঙ্গে অক্ষয়ের সম্পর্ক ভেঙে যায়। শিল্পা শেট্টির কারণেই সম্পর্ক ভেঙেছিল রবিনার সঙ্গে, এমন কথাও বলিউডের বেশ কয়েকটি ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়েছিল। শিল্পার সঙ্গে সম্পর্কে থাকাকালীনই আলাপ হয় টুইঙ্কলের সঙ্গে।
যদিও পরবর্তীতে পূজা বাত্রা, আয়েষা জুলকা-সহ আরও বেশ কয়েক জনের সঙ্গে অক্ষয়ের নাম জড়িয়েছিল। টুইঙ্কলের সঙ্গে তার প্রেম স্থায়ী হয়। তারা এখন বলিউডের সুখী দম্পতি। অন্য দিকে রবিনা ট্যান্ডনও ভাল আছেন। ব্যবসায়ী অনিল থাদানির সঙ্গে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হয়েছেন রবিনা। ব্যক্তিগত জীবনে সুখী তিনিও। খবর : আনন্দবাজার’র।