সাংবাদিক নেতা শহীদ উল আলমসহ ৭ জনের আগাম জামিন আবেদন খারিজ

0
133

প্লট জালিয়াতি মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
জালিয়াতির মাধ্যমে নকশা পরিবর্তন করে প্লট সৃষ্টি এবং সদস্য না হওয়া সত্বেও নিজেদের স্ত্রীর নামে চট্টগ্রাম সাংবাদিক কো অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির প্লট বরাদ্দ দেয়ার বহুল আলোচিত মামলায় চার সাংবাদিকসহ সাতজনের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে তাদের বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গতকাল সোমবার হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ সাংবাদিক নেতা শহীদুল আলমসহ সাতজনকে এই নির্দেশ প্রদান করেন। প্লট কেলেংকারির ব্যাপারে দুদকের মামলায় আগাম জামিন আবেদনের শুনানি শেষে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ প্রদান করেন। আগামী ২৪ ডিসেম্বরের মধ্যে তাদের বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে।
আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শফি উদ্দিন চৌধুরী।
পরে এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক সাংবাদিকদের জানান, জালিয়াতির মাধ্যমে প্লট সৃষ্টি করে বরাদ্দসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে চট্টগ্রামের চার সাংবাদিক, তাদের স্ত্রীসহ নয়জনের বিরুদ্ধে গত ২৫ নভেম্বর মামলা করে দুর্নীতি দমনকমিশন (দুদক)। দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়-চট্টগ্রাম-১ এর সহকারী পরিচালক মো. আবু সাঈদ বাদি হয়ে গত ২৫ নভেম্বর এ মামলা (নং- ১৪) করেন।
মামলার নয় আসামির মধ্যে চট্টগ্রাম সাংবাদিক কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি লিমিটেডের সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুব উল আলম, সাবেক সম্পাদক নিজাম উদ্দিন আহমেদ, সাবেক কোষাধ্যক্ষ শহীদ উল আলম, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নির্মল চন্দ্র দাশ, তার স্ত্রী তপতী দাশ, শহীদ উল আলমের স্ত্রী তসলিমা খানম, নিজাম উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী হোসনে আরা গতকাল আগাম জামিন চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন। হাইকোর্ট তাদের আগাম জামিন প্রদান না করে আগামী ২৪ ডিসেম্বর মধ্যে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন।