৩১ জুলাই পর্যন্ত বিলম্ব মাশুল ছাড়াই বিদ্যুৎ বিল জমা দেয়ার সুযোগ

0
262

সুপ্রভাত ডেস্ক :

নভেল করোনা ভাইরাসে সৃষ্ট সংকট বিবেচনায় আরও একমাস লেট ফি বা বিলম্ব মাশুল ছাড় পাচ্ছেন বিদ্যুতের আবাসিক গ্রাহকরা। এবার জুন মাসের বিল বিলম্ব মাশুল ছাড়াই ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে পরিশোধ করতে পারবেন গ্রাহকরা।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গতকাল বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) এক প্রজ্ঞাপন জারি করে বিলম্ব মাশুল ছাড়ের কথা জানায়।

এর আগে মহামারীর কারণে ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু করে জুন মাস পর্যন্ত বিদ্যুতের আবাসিক গ্রাহকদের বিল পরিশোধে ৫ শতাংশ বিলম্ব ফি মওকুফ করা হয়। সময় বাড়ানোর ফলে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত ৫ শতাংশ বিলম্ব মাশুল ছাড়াই বিল পরিশোধের সুযোগ পাচ্ছেন গ্রাহকরা।

বিদ্যুতের ভুতুড়ে বিল নিয়ে দেশব্যাপী বিদ্যুত বিলে গ্রাহকদের ভোগান্তি তৈরি হয়। অনেকে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সেসময় বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারেননি। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত ৮ জুলাই বিলম্ব মাশুল মওকুফের জন্য কমিশনের কাছে চিঠি দেয় বিদ্যুৎ বিভাগ।

চিঠিতে বলা হয়, অতিরিক্ত বিলের ভোগান্তির কারণে অনেকেই জুনের মধ্যে তাদের সব বিল পরিশোধ করতে পারেননি। ফলে গ্রাহকদের জন্য ৩১ জুলাই পযন্ত বিলম্ব মাশুল মওকুফের জন্য বিইআরসিকে জানায় বিদ্যুৎ বিভাগ।

সে সময় বিইআরসি জানায়, বিদ্যুতের বিতরণ কোম্পানিগুলো আবেদন করলেই তারা বিদ্যুৎ বিলে বিলম্ব মাশুল মওকুফ করার আদেশ দেবেন। এরপর বিতরণ কোম্পানিগুলোও একে একে আবেদন করা শুরু করে । তাদের আবেদনের ওপর ভিত্তি করে এই আদেশ দেয় কমিশন।

প্রসঙ্গত, গত ২২ মার্চ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আইরিন পারভিন স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে জানানো হয়, ফেব্রুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত বিলম্ব মাশুল প্রয়োজন হবে না। গ্রাহক মে মাসে বিলম্ব মাশুল ছাড়াই বিল পরিশোধ করতে পারবেন। তবে বিতরণ কোম্পানির ভুতুড়ে বিলের অভিযোগ ওঠায় মৌখিকভাবে বিলম্ব মাশুল ছাড়াই জুনের মধ্যে বিল পরিশোধ করার আদেশ দেওয়া হয়।