৩০তম ট্রফির সামনে রোনালদো

0
215

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
তার রাজকীয় প্রত্যাবর্তনের অপেক্ষায় ছিলেন বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরা। কিন্তু কোপা ইটালিয়া সেমিফাইনালের দ্বিতীয় পর্বে এসি মিলানের বিরুদ্ধে শুধু পেনাল্টিই নষ্ট করেননি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, নিজের সেরা ফর্মের ধারেকাছেও ছিলেন না। অথচ লা লিগায় প্রত্যাবর্তনের ম্যাচে লিয়োনেল মেসির জাদুতে মায়োরকাকে চূর্ণ করেছে বার্সেলোনা। এই পরিস্থিতিতে বুধবার রোমে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে নাপোলির বিরুদ্ধে ফাইনালে নিজেকে প্রমাণ করতে মরিয়া সি আর সেভেন। সঙ্গে করোনার ধাক্কায় বিপর্যস্ত দেশটায় বিনোদন ফেরানোর লড়াইও পর্তুগালের মহাতারকার।
পাঁচ বারের ব্যালন ডি’ওর জয়ী রোনালদো দেশ ও ক্লাবের হয়ে এখনও পর্যন্ত ২৯টি ট্রফি জিতেছেন। বুধবার কোপা ইটালিয়ায় জুভেন্টাস চ্যাম্পিয়ন হলে ৩০তম ট্রফি জিতবেন পর্তুগালের অধিনায়ক। অথচ সেমিফাইনালে ঘরের মাঠে এসি মিলানের বিরুদ্ধে একেবারেই ছন্দে ছিলেন না তিনি। ম্যাচের শুরুতেই পেনাল্টি নষ্ট করেন। ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে শেষ বার পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন রোনালদো। ইটালির একটি ক্রীড়া সংবাদ মাধ্যমের ব্যাখ্যা, এসি মিলানের বিরুদ্ধে ফরোয়ার্ডের বদলে লেফ্ট উইঙ্গার হিসেবে রোনালদোকে খেলান সাররি। নতুন পোজিশনে মানিয়ে নিতে না পারার জন্যই ছন্দে ছিলেন না সি আর সেভেন। যদিও সাররি সেই যুক্তি মানেননি। বলেছিলেন, ‘রোনালদোর সঙ্গে আমি এই ব্যাপারে আলোচনা করেছিলাম। ও অসাধারণ ফুটবলার। আমার মনে হয় না, পোজিশন বদলে যাওয়ার প্রভাব ওর খেলার মধ্যে পড়েছিল।’
কোপা ইটালিয়ার ফাইনালে রোনালদোকে সামনে রেখেই যে নাপোলিকে হারানোর রণনীতি সাজাচ্ছেন, তার ইঙ্গিত দিয়েছেন সাররি। চোটের কারণে আর এক স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়াইনের খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ। পাওলো দিবালা, ডগলাস কোস্তার সঙ্গে রোনালদোকে রেখে ৪-৩-৩ ছকে খেলার পরিকল্পনা জুভেন্টাস ম্যানেজারের। কারণ, এই ম্যাচটা তার কাছেও অগ্নিপরীক্ষা। জুভেন্টাসের ম্যানেজার হিসেবে প্রথম ট্রফি জিততে মরিয়া সাররি বলেছেন, ‘নাপোলি দারুণ দল। তাই আমাদের সংঘবদ্ধ হয়ে খেলতে হবে।’ নাপোলি ম্যানেজার জেন্নারো গাত্তুসোকে নিয়ে যে তিনি চিন্তিত, তা গোপন করেননি সাররি। বলেছেন, ‘গাত্তুসো আমার অত্যন্ত প্রিয়। ওর মধ্যে কোনও জটিলতা নেই।’ শুধু হিগুয়াইন নন, এই ম্যাচে অনিশ্চিত জুভেন্টাস রক্ষণের অন্যতম ভরসা জর্জো কিয়েল্লিনিও।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর প্রথম পর্বে বার্সেলোনার বিরুদ্ধে ম্যাচে গাত্তুসোর রণনীতি আটকে দিয়েছিল মেসিকে। ম্যাচের ফল ছিল ১-১। বুধবার কোপা ইটালিয়া ফাইনালে রোনালদোকেও যে তিনি খেলতে দেবেন না, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই ফুটবল পণ্ডিতদের। তাই নাপোলি ম্যানেজারের চক্রব্যূহ ভেঙে সি আর সেভেন জুভেন্টাসকে চ্যাম্পিয়ন করতে পারেন কি না, তা নিয়েই ফুটবলপ্রেমীদের আগ্রহ তুঙ্গে।
খবর : আনন্দবাজার’র।