২৬ মার্চ এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা

0
70
????????????????????????????????????

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন

মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন ও গণহত্যা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নগর আওয়ামী লীগ : মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন ও গণহত্যা দিবস উপলক্ষে নগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, চসিক সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, উপদেষ্টা ম-লীর সদস্য শেখ মাহমুদ ইছহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ হোসেন, ধর্ম সম্পাদক হাজী জহুর আহমেদ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবু তাহের, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, নির্বাহী সদস্য সাইফুদ্দিন খালেদ বাহার, হাজী বেলাল আহমেদ, নগর আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, থানা আওয়ামী লীগের রেজাউল করিম কায়সার, ১৫ নম্বর বাগমনিরাম ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি প্যানেল মেয়র গিয়াস উদ্দিন প্রমুখ।

প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি : নগরীর জিইসি মোড়স্থ প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করা হয়েছে। ২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার সময় আন্তর্জাতিক সমাজবিজ্ঞানী ও শিক্ষায় একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, ২৫ মার্চ রাতে গণহত্যা শুরুর পর পর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ঘোষণা করেন।

উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করার সময় উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার প্রফেসর একেএম তফজল হক, কলা ও সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম, প্রকৌশল ও বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. তৌফিক সাঈদ, ব্যবসা-শিক্ষা অনুষদের সহকারী ডিন এম মঈনুল হক, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ইফতেখার মনির, আইন বিভাগের চেয়ারম্যান তানজিনা আলম চৌধুরী, ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান সাদাত জামান খান, অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ফারজানা ইয়াসমিন চৌধুরী প্রমুখ। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন উপাচার্যের উপদেষ্টা ও চিফ ইঞ্জিনিয়ার মো. আবু তাহের, রেজিস্ট্রার খুরশিদুর রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক শেখ মুহাম্মদ ইব্রাহিম প্রমুখ।

সাদার্ন ইউনিভার্সিটি : যথাযথ মর্যাদায় সাদার্ন ইউনিভার্সিটি পালন করলো স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মহান স্বাধীনতা দিবস। করোনা ভাইরাসের উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে এবার ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

২৬ মার্চ সকাল ১০টায় উপাচার্য অধ্যাপক প্রকৌশলী মোহাম্মদ মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনায় অনলাইনে যুক্ত হন উদ্যোক্তা ও প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক সরওয়ার জাহান, বিভিন্ন বিভাগের উপদেষ্টা, বিভাগীয় প্রধানগণ, শিক্ষক ও কর্মকর্তারা।

সভায় বক্তারা বলেন, আজ সেই মাহেন্দ্রক্ষণ, মহান স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তিতে জাতি পালন করছে সুবর্ণজয়ন্তী। একই সাথে স্মরণ ও উদযাপন করছে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী। ২৬ মার্চ বাঙালি জাতির জীবনে অনন্যসাধারণ একটি দিন। সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা জোগায় দিনটি। ২৬ মার্চ ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার ঘোষণার মধ্যদিয়ে রচিত হয়েছিলো বাংলাদেশ নামের একটি স্বাধীন, স্বার্বভৌম ভূ-খ-ের। জাতিসংঘ কর্তৃক উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতিপত্রই প্রমাণ করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং স্বাধীনতার কারণেই এই অর্জন সম্ভব হয়েছে। স্বাধীনতার ৫০ বছরে যা অর্জিত হয়েছে তা কোনো অংশে কম নয়। দীর্ঘ পথ চলায় বাংলাদেশ শত বাধা বিপত্তি পেরিয়ে এগিয়ে গেছে অদম্য লক্ষ্যে। দেশ এখন আর কোনো লেখকের কাল্পনিক কাহিনী তলাবিহীন ঝুঁড়ি নয় বরং উন্নয়নের রোল মডেল। বিশেষ দিবস পালনের উদ্দেশ্যে হলো বর্তমান শিক্ষার্থীদের কাছে দেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে তুলে ধরা। যেকোনো জাতির সঠিক ইতিহাস উঠে আসতে কমপক্ষে ১০০ বছর অপেক্ষা করতে হয়। স্বার্থন্বেষী মহল ইতিহাস বিকৃতির যতই চেষ্টা করুক না কেন একদিন সত্য প্রকাশিত হবে। বঙ্গবন্ধুর দেখানো আদর্শ বুকে ধারণ করে দেশপ্রেমের মাধ্যমে সকলকে উন্নয়ন কর্মকা-ে আত্ম নিয়োগ করতে হবে।

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি : সবার অংশগ্রহণে মহান স্বাধীনতা দিবসের অনলাইন অনুষ্ঠান যেন পরিণত হলো প্রাণবন্ত উৎসবে। পর্দায় ভেসে উঠলো অনেকগুলো মুখ।

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) ২৫ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে অনুষ্ঠিত মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস অনুষ্ঠানের চিত্রটা ছিল এমন-ই। সিআইইউর জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউর উপাচার্য ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বাংলাদেশের টেকসই অর্থনীতির দিকে অধিক মনোযোগী হওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, রাষ্ট্র শক্তিশালী হলে অর্থনীতির লক্ষ্য অর্জন সহজ হবে। তাই সবার সমন্বিতভাবে কাজ করার বিকল্প নেই।

জাতীয় দিবস উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন, নিজের দেশ ছাড়া কোনো মানুষের পূর্ণতা আসে না। বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ-এসব অধ্যায় তরুণদের অন্তরে ধারণ করতে হবে।

সিআইইউর ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমার প্রাণবন্ত উপস্থাপনে অনুষ্ঠানে স্বাধীনতা দিবসের চেতনা নিয়ে বক্তব্য দেন বিজনেস স্কুলের ডিন ড. নাঈম আবদুল্লাহ, দুই অধ্যাপক ড. মীর মোহাম্মদ নুরুল আবসার ও অধ্যাপক ড. সৈয়দ মনজুর কাদের, স্কুল অব সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিন ড. আসিফ ইকবাল, স্কুল অব ল’র সহকারী ডিন মোহাম্মদ আকতারুল আলম চৌধুরী, স্কুল অব লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সেস এর সহকারী অধ্যাপক কাজী মো. সাইফুল আসপিয়া প্রমুখ।

ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক সানজিদা আফরীন নির্মলেন্দু গুণের ‘স্বাধীনতা, এই শব্দটি কিভাবে আমাদের হল’ আবৃত্তি করে উপস্থিত সবার প্রশংসা পেয়ে যান।

দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ : দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান বলেছেন, ঘাতক ইয়াহিয়ার ২৫ মার্চ কালরাতের ‘অপারেশন সার্চলাইট’ নামের হত্যাযজ্ঞে সমগ্র দেশ বীভৎস রূপ ধারণ করে। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনী এদেশের নিরস্ত্র মানুষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। ২৬ মার্চ সকাল ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি রক্তবন্যার স্বাক্ষর বহন করেছে। স্বাধীনতার জন্য এ দেশের মানুষকে দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ করতে হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর অমূল্য ভাষণের মাধ্যমে স্বাধীনতা অর্জন করেছি। বঙ্গবন্ধু পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত যুদ্ধ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন, সাথে সাথে বাংলাদেশকে স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র বলে ঘোষণা করেছেন। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রশ্নে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর সঙ্গে আপোস করেন নি।

২৬ মার্চ সকাল ১০টায় মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।

সভায় বক্তব্য রাখেন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট জহির উদ্দিন, সংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, শ্রম সম্পাদক খোরশেদ আলম, দপ্তর সম্পাদক আবু জাফর, কৃষি সম্পাদক অ্যাডভোকেট জহির উদ্দিন, ধর্ম সম্পাদক আবদুল হান্নান চৌধুরী মঞ্জু, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য চেয়ারম্যান নাছির আহমদ, মোস্তাক আহমদ আঙ্গুর, সৈয়দুল মোস্তফা চৌধুরী রাজু, এ কে আজাদ, পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল ছবুর, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য জাহেদুর রহমান সোহেল প্রমুখ।

নগর মহিলা শ্রমিকলীগ : স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও মহান স্বাধীনতা দিবস স্মরণে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সকাল ১০টায় ফুলেল শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নগর মহিলা শ্রমিকলীগ। এতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মহিলা শ্রমিকলীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক রুবা আহসান চৌধুরী। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নগর মহিলা শ্রমিলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারা আলম, সহ-সভাপতি শেলিনা খান, নাসিমা আকবর, মুক্তা জামান, কানিজ ফাতেমা লিমা, সুবর্না খান, রুনা আকতার, সুমী আকতার, আয়শা আকতার, তাহিয়াতুল মাওয়া, বুলবুল আকতার, শীলা আকতার, তাসলিমা আকতারসসহ নেত্রীবৃন্দ।

চাটগাঁইয়্যা নওজোয়ান : ৫০ বছরে বাংলাদেশের এবারের ২৬ শে মার্চ আমাদের বিশ্ব দরবারে দিয়েছে ব্যাপক সম্মান। আমরা চাই আমাদের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব থাকুক আজীবন। প্রত্যেকের কর্মে, মননে, ব্যথায় থাকবে স্বাধীন বাংলাদেশ সবসময়।

২৬ মার্চ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী সংগঠন চাটগাঁইয়্যা নওজোনের নিজস্ব কার্যালয়ে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেলিম আকতার পিয়ালের সঞ্চালনায় সংগঠনের সভাপতি জামাল আহমেদের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট মহিবুল্লাহ চৌধুরী, সহ-সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আহিল সিরাজ, সহ-সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস ইলু, অর্থ সম্পাদক মো. মঞ্জুর আলম, সহ-অর্থ সম্পাদক জানে আলম জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হায়দার রাজিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাহেরুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক ওমর আলী রনি, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক রেজাউল করিম মানিক, মহিলা সম্পাদক রায়হান সুলতানা নিহা, সহ-মহিলা সম্পাদক সীমা সেন, কার্যকরী সদস্য জাফর ইকবাল, সাফাত ইব্রাহিম, সদস্য মুজিবুল হক নিয়াজী, জাহিদ তানছীর প্রমুখ।

জাতীয় শ্রমিক লীগ : স্বাধীনতা দিবসে সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগ নগর ও অঞ্চলসমূহের উদ্যোগে আলোচনা সভা ২৬ মার্চ জাতীয় শ্রমিক লীগ নগর এর সভাপতি বখতেয়ার উদ্দিন খান এর সভাপতিত্বে দারুল ফজল মার্কেট চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য ও নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নঈম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা কারো দয়ার উপর হয়নি। ৩০ লক্ষ শহীদ ও ২ লক্ষ মা-বোনের ইজ্জত ও ১ কোটি শরণার্থী ভারতে অবস্থানের  বিনিময়ে স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। একথা সকলকে স্মরণ করতে হবে।

কোতোয়ালী থানা শ্রমিকলীগের সভাপতি প্রবীণ কুমার ঘোষের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন প্রবীণ শ্রমিক লীগ নেতা নুরুল আলম, সিএন্ডএফ এজেন্ট শ্রমিক ইউনিয়নের উপদেষ্টা সাজ্জাদুর রহমান বাচ্চু, চট্টগ্রাম ওয়াসা সিবিএ ইউনিয়নের সদস্য রেজওয়ান হোসেন দুলাল, সিএন্ডএফ এজেন্ট শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যকরী সভাপতি জাফরুল আলম মজুমদার, গার্মেন্টস শ্রমিক নেতা মো. মোরশেদ, মো. আলাউদ্দিন, শ্যাম দুলাল, সরোয়ার আলম, তোফাজ্জল হোসেন জিকু, আফাজ উদ্দিন আবছার, মো. দেলোয়ার হোসেন, রাশেদুল ইসলাম, আজগর আলী, আলী আকবর বাবর, নাসির উদ্দিন বুলু, এসএম ওমর ফারুক, দিদারুল আলম, মো. সেলিম, দেবাশীষ চৌধুরী দেবু, সিরাজুল ইসলাম, বিপ্লব দে, নুর এয়াছিন চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম, মিজানুল ইসলাম চৌধুরী, এমরান হোসেন ছোটন, মো. রিপন, মো. ছোটন, স্বপন সিংহ, নিয়াজ মোহাম্মদ, নাহিদুল ইসলাম জাবেদ, রিপন খান পাঠান, মো. কামাল, মো. জাহাঙ্গীর, মো. খোকন, মিনহাজ উদ্দিন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি