২২ দিন ইলিশ ধরা-বিক্রির নিষেধাজ্ঞা শুরু

0
191

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ২০ কেজি ইলিশ জব্দ
ব্যবসায়ীকে জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

মা ইলিশ রক্ষায় প্রধান প্রজনন মৌসুম হিসেবে আজ বুধবার থেকে ২২ দিনের জন্য ইলিশ ধরা ও বিক্রির নিষেধাজ্ঞা শুরু হয়েছে। ইলিশের উৎপাদন বাড়াতে ও ডিম ছাড়ার সুযোগ দিতে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত সারাদেশের নদ-নদীতে ইলিশসহ সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার।
সরকারের নির্দেশ অমান্য করে কেউ যাতে এ সময় মাছ ধরতে নদীতে নামতে না পারে, সেজন্য গতকাল থেকে নগরীতে মাঠে নেমেছেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।
গতকাল ভোর সাড়ে ৫টায় নগরীর ফিশারিঘাটে অভিযান পরিচালনা করা হয়। সেখানে কোনো অনিয়ম দেখা না গেলেও নগরের বিভিন্ন বাজারে অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি ইলিশ জব্দ ও এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
নগরীর মেমিন রোডের অস্থায়ী কাঁচা বাজারে অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়। এসময় মো. সোহেল নামে এক ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আলী হাসান সুপ্রভাতকে বলেন, ইলিশ মাছ ধরা ও বিক্রির নিষেধাজ্ঞা শুরুর প্রথম দিন আমরা ফিশারিঘাট ও রিয়াজ উদ্দিন বাজারে অভিযান পরিচালনা করি। সেখানে কোনো ইলিশ পাওয়া যায়নি। তবে নগরীর মোমিন রোডের অস্থায়ী কাঁচা বাজারে অভিযান চালিয়ে ২০ কেজি ইলিশ মাছ জব্দ করা হয়। এসময় এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়।
সরকার ঘোষিত নির্দেশনা অনুযায়ী ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিন ইলিশ প্রজনন ক্ষেত্রে ইলিশসহ সব ধরনের মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ। এসময় দেশব্যাপী ইলিশ আহরণ, বিপণন, পরিবহন, ক্রয়-বিক্রয়, বিনিময় এবং মজুদ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।