২০২২ থেকেই আইপিএল হবে দশ দলের

0
140

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
১০ নয়, আগামী বছরের আইপিএল হবে ৮ দলেরই। তবে ২০২২ সাল থেকে কোটি টাকার টুর্নামেন্ট বহরে বড় হবে। অর্থাৎ ২০২২ সালে আইপিএলে যুক্ত হবে আরও দুটি দল। বৃহস্পতিবার আহমেদাবাদে বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় এমনটাই সিদ্ধান্ত হয়েছে।
করোনা আবহে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে আইপিএল’১৩-র আসর শেষ হওয়ার পর থেকেই ক্রিকেট মহলে জল্পনা শুরু হয় আগামী বছর আইপিলে আরও দুটো দল যোগ করতে চাইছে বিসিসিআই। শোনা যায়, দুটি দলের মধ্যে একটি নেওয়া হবে আহমেদাবাদ থেকে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই শেষ পর্যন্ত এই পরিকল্পনা এক বছর পিছিয়ে দিতে হল বিসিসিআইকে। কারণ, এই করোনা আবহে দুটি দলকে নতুন করে যোগ করতে হলে, আরও অন্তত কুড়িটি ম্যাচ আয়োজন করতে হত। যা ঝুঁকিপূর্ণ তো বটেই, খরচসাপেক্ষও। তাই শেষমেশ বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় আগামী মরশুমে আগের মতো আট দলের আইপিএলে আয়োজনেরই সিদ্ধান্ত হয়। এবং ২০২২ থেকে অর্থাৎ আইপিএল ১৫ থেকে দুটি নতুন দল নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কোন কোন শহর থেকে এই দুটি দল নেওয়া হবে, সেটা অবশ্য বোর্ড এখনও ঘোষণা করেনি।
এদিকে এদিন বোর্ডের বার্ষিক সাধারণ সভায় আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লা সর্বসম্মতিক্রমে বোর্ডের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন। মহিম বর্মার পদত্যাগের পর এই আসনটি ফাঁকাই পড়েছিল। এদিনের বৈঠকে ঘরোয়া ক্রিকেটের জন্য একাধিক বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বিসিসিআই। সুত্রের খবর, মহামারীর আবহে ঘরোয়া মরশুম খেলা না হওয়ায় ক্রিকেটররা যে আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন, তা পুরণ করে দেবে বোর্ড। শুধু তাই নয়, জানুয়ারি থেকে পুরোদমে ঘরোয়া মরশুম শুরু করারও পরিকল্পনা রয়েছে বিসিসিআইয়ের।
অন্যান্য বড় সিদ্ধান্তের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত করার যে প্রস্তাব আইসিসিদিয়েছে, সেই প্রস্তাবকেও সমর্থন করেছে বিসিসিআই।যদিও এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আগামী বছর এক বিশেষ সভায় নেওয়া হবে। সেই সঙ্গে আইসিসির ডিরেক্টর হিসেবে খোদ প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে বেছে নিয়েছে বিসিসিআই। সৌরভের অনুপস্থিতিতে আইসিসির বৈঠকগুলিতে হাজির থাকবেন সচিব জয় শাহ। খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।