সামিয়ার পুতুলখেলা

0
47

মো. জোবাইদুল ইসলাম :

সামিয়া পুতুল নিয়ে খেলতে ভীষণ ভালোবাসে। ওর কাছে অনেকগুলো পুতুল আছে। সামিয়ার বাবা প্রতি ঈদে তাকে নতুন নতুন পুতুল কিনে দেয়। সেসব পুতুল নিয়ে সামিয়া খেলা করে। ওর একটা প্রিয় পুতুল আছে, যেটা গানও গাইতে পারে। সামিয়া প্রতিদিন তার প্রিয় পুতুলটাকে নতুন নতুন জামা পরায়। এই সুন্দর  ছোট্ট জামাগুলো পুতুলের জন্য কে বানিয়ে দেয় শুনবে?  শোনো তাহলে।

সামিয়ার প্রিয় পুতুলটির জন্য ওর আন্টি প্রতিদিন নতুন নতুন সুন্দর জামা বানিয়ে দেয়। জানো! সামিয়ার আন্টি সেলাই করতে পারে তো। তাই প্রতিদিন ওরকম নতুন জামাও বানিয়ে দিতে পারে। সামিয়ার আন্টি ওকে ভীষণ ভালোবাসে। তিনি প্রতিদিন পুতুলের জন্য পোশাক নিয়ে আসার সময় সামিয়ার জন্য চকলেট আর আইসক্রিমও নিয়ে আসে। সামিয়া এখনো স্কুলে যায় না। তবে কিছুদিন আগে ওর বাবাকে বলতে শুনেছে, ওকে নাকি একটা কেজি স্কুলে ভর্তি করিয়ে দেবে। ও এখন সারাদিন পুতুল নিয়ে খেলতে পারে। কারণ ওর স্কুল নেই, পড়াও নেই। কিন্তু পড়া যে একেবারে নেই, তেমনও নয়। ওর আম্মু প্রতিদিন ওকে পড়তে বসায়। আম্মু তাকে মজা করে পড়ায়। অ ই ঈ,  ১ ২ ৩ সামিয়া মুখস্থ পারে। আর পড়া পারে বলে ওর আম্মু ওকে ভীষণ আদর করে। ওর চাচ্চুও মাঝে মাঝে আসে ওদের বাসায়। ওর চাচ্চু একটি স্কুলে পড়ান। তাই ওদের বাড়িতে আসলেই ওর থেকে পড়া ধরে। সামিয়া চাচ্চুকে সব পড়া দিতে পারলেই চাচ্চু ওকে একটি সুন্দর পুতুল কিনে দেবে। সামিয়া তো খুব খুশি। কারণ সে চাচ্চুকে সব পড়া দিতে পারবে। সামিয়া সব পড়া পারলো তাই তার চাচ্চু তাকে একটি নতুন সুন্দর পুতুল কিনে দিলো। সে পুতুলটা আগের সবগুলো পুতুল থেকেও বেশি সুন্দর। সামিয়া এখন সেই সুন্দর পুতুলটা নিয়ে খেলে। একদিন ওদের বাসায় ওর মামণি বেড়াতে আসে। সাথে তার ছোট্ট মামাতো  বোন সাদিয়াও এলো। ওদের নামের মধ্যে একটা মিল রয়েছে। সামিয়া, সাদিয়া। দুজনের নামই ‘স’ দিয়ে শুরু।

আবার ওদের আরো একটা মিল আছে দু’জনই পুতুল নিয়ে খেলতে ভীষণ ভালোবাসে। সামিয়া সাদিয়াকে পেয়ে ভীষণ খুশি। কারণ, ওকে এবার একা একা খেলতে হবে না আর। সাদিয়াকে নিয়ে ও এবার পুতুলখেলা খেলতে পারবে। সামিয়া প্রতিদিন দুপুরের খাবার  খেয়ে ঘুমোতে যায়। কিন্তু আজ ঘুমোবে না। আজ সাদিয়াসহ পুতুলখেলা খেলবে। সামিয়া পুতুলখেলা খেলার জন্য ওর কাছে থাকা সবগুলো পুতুল বের করলো। সাদিয়া তো দেখে অবাক! এত্তোগুলো পুতুল! সামিয়া সাদিয়াকে জিজ্ঞেস করলো, তোমার কাছে কত্তগুলো পুতুল আছে? সাদিয়া হেসে উত্তর দিলো, আপু!  তোমার কাছে যত্তগুলো আছে আমার কাছে অত্তগুলো নেই। তবে আব্বু বলেছে এবার ঈদের সময় আমাকে অনেকগুলো পুতুল কিনে দেবে। কত্ত মজা হবে তাই না, আপু! সামিয়া বলে, হ্যাঁ অনেক মজা হবে। আর তোমরা তো এবার ঈদ আমাদের বাড়িতেই করবে। তাই আরো বেশি মজা হবে।