সাতকানিয়ায় আগুনে পুড়ল সাত বসতঘর

0
79

মহিলাসহ আহত ২
ক্ষতির পরিমাণ ১৫ লক্ষ টাকা

নিজস্ব প্রতিনিধি, সাতকানিয়া <
সাতকানিয়ায় এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৭ বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরের মালিকরা হলেন সাবেক ইউপি সদস্য বিমল জলদাস, সন্তোষ জলদাস, স্বপন জলদাস, ব্রজবালা জলদাস, প্রিয়লাল জলদাস, প্রিয়তোষ জলদাস ও নির্মল জলদাস। এ সময় গোয়ালঘরে থাকা জীবন্ত দগ্ধ হয়ে ২টি গবাদি পশুও মারা যায়। তাছাড়া অগ্নিদগ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন এক মহিলা ও এক পুরুষ।
গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ড জলদাস পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। অগ্নিকাণ্ডে নগদ অর্থ, কাপড় চোপড়, আসবাবপত্র ও মূল্যবান জিনিসপত্র মিলে ক্ষতির পরিমাণ ১৫ লক্ষাধিক টাকা হবে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানিয়েছেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য হাসান আলী রাশেদ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, নির্মল জলদাসের গোয়ালঘর থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়ে নিমিষেই পার্শ্ববর্তী বসতঘরগুলোতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনে টিনের চালা সেমি পাকা ও বেড়ার ৭টি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।
অগ্নিদগ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন মৃত সতীশ জলদাসের স্ত্রী ব্রজবালা জলদাস (৬০) ও মানিক দাসের ছেলে সন্তোষ জলদাস (৫৫)। তাদের উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
ইউপি সদস্য হাসান আলী রাশেদ ও স্থানীয় ব্যবসায়ী তসলিম উদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতি পরিবারকে ৫ হাজার টাকা ও স্থানীয় চেয়ারম্যান ২০ কেজি চাল ও নগদ ১ হাজার টাকা প্রদান করেন।
সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্তব্যরত কর্মকর্তা ধর্মপুরে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেননি।
ধর্মপুর ইউপি চেয়ারম্যান মো. ইলিয়াছ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত অধিকাংশই মধ্যবিত্ত ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্য। তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।