সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান

0
152

# শহীদ নুর হোসেনের স্মরণসভা

শহীদ নুর হোসেনের ৩৩তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভায় বক্তারা বলেছেন ১৯৮৭ সালে গণতন্ত্রের জন্য শহীদ নুর হোসেন জীবন্ত পোস্টার হয়ে নিজেকে উৎসর্গ করে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠানিক রূপ দিয়েছিলেন। একটি অপশক্তি দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি সহ্য করতে না পেরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের সাথে হাত মিলিয়ে গণতান্ত্রিক চর্চাকে ব্যাহত করার চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে।
বক্তারা বলেন, এদেশের গণতন্ত্র প্রেমীরা যুগ যুগ ধরে শহীদ নুর হোসেনকে স্মরণ রাখবে কারণ নুর হোসেনদের জীবনের বিনিময়ে রাজনীতিবিদদের গণতন্ত্র চর্চার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। গণতন্ত্র পেয়েছে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ। বক্তারা সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলা কর্তৃক আয়োজিত শহীদ নুর হোসেন স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সহ-সভাপতি সাংস্কৃতিক সংগঠক প্রনবরাজ বড়–য়া। রিমন মুহুরীর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ। প্রধান বক্তা ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক চন্দন ধর, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম, প্রফেসর ড. জিনবোধি ভিক্ষু, দীপেন চৌধুরী, সুমন দেবনাথ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এম.এ নেওয়াজ, নোমান উল্লাহ বাহার।
বক্তব্য রাখেন আলী আহমেদ শাহিন, অধ্যাপক শিব প্রসাদ, গেরিলা বীর মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান মিলন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাহাদুর আলম, দীলিপ হোড়, অচিন্ত্য কুমার দাশ, নারায়ন দাশ, রতন ঘোষ, দিলীপ সেনগুপ্ত, শিক্ষক দিলীপ চন্দ্র বড়–য়া, হারুন রশিদ, মাওলানা মাহাবুবুর রহমান, মো. তিতাস, নুপুর আক্তার, শিউলী আকতার, সজল দাশ, ছবির আহমেদ, হানিফুল ইসলাম চৌধুরী, ওয়াসিম উদ্দীন, শিল্পী সমীরন পাল প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি