শিল্পকলায় কবিতা উৎসব

0
148

চট্টগ্রাম কবিতার শহর। কবিতার শহরে গত তিনবছরের ধারাবাহিকতায় এবারো বর্ণিল অনুষ্ঠানমালায় শুরু হয়েছে তিনদিনের কবিতা উৎসব।
গতকাল শুক্রবার বিকেলে নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে বাচিক শিল্প চর্চার সংগঠন ‘তারুণ্যের উচ্ছ্বাস’ এর আয়োজনে এ কবিতা উৎসবের উদ্বোধন করেন বরেণ্য সমাজবিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. অনুপম সেন।
উদ্বোধনের পর বঙ্গবন্ধুকে নিবেদিত উদ্বোধনী বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করেন তারুণ্যের উচ্ছ্বাসের শিল্পীরা। এর পর ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয় সদ্যপ্রয়াত কিংবদন্তী আবৃত্তিশিল্পী প্রদীপ ঘোষের প্রতিকৃতিতে।
উল্লেখ্য তিনদিনের এ কবিতা উৎসব তাঁর স্মৃতির প্রতি উৎসর্গ করা হয়।
তারুণ্যের উচ্ছ্বাস সভাপতি কবি ভাগ্যধন বড়–য়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী সভায় অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তারুণ্যের উচ্ছ্বাস কবিতা উৎসব উদযাপন পরিষদ চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, জেলা সংস্কৃতি বিষয়ক কর্মকর্তা মোসলেম উদ্দীন শিকদার, আবৃত্তিশিল্পী মাশকুর এ সাত্তার কল্লোল এবং মাসুম আজিজুল বাসার।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন উৎসব সমন্বয়কারী পার্থ নন্দী এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি প্রবীর মহাজন।
উদ্বোধনী সভায় বক্তারা বলেন, ‘কবিতার বিশুদ্ধ কথামালা আমাদের পরিশুদ্ধ করে। দার্শনিকরা যা দেখতে পারেননি, কবিরা তা দেখেছেন, দেখাতে পেরেছেন কবিতায়। এই করোনা ক্রান্তিকালে চট্টগ্রামের শিল্প সাহিত্য অঙ্গণে যে স্থবিরতা এসেছে তারুণ্যের উচ্ছ্বাসের কবিতা উৎসব আয়োজন এই স্থবিরতা মুছে তাতে প্রাণসঞ্চার করেছে। ’
ভারতীয় সহকারী হাই কমিশন চট্টগ্রাম, এসকেএফ, জনতা ব্যাংক লিমিটেড এবং রূপালী ব্যাংক লিমিটেডের সহযোগিতায় তিনদিনের এ আয়োজনের প্রথম দিনে আবৃত্তিশিল্পী সেজুতি দের সঞ্চালনায় আবৃত্তিতে অংশ নেন আবৃত্তিশিল্পী অঞ্চল চৌধুরী, রেখা নাজনীন, মিলি চৌধুরী, ফারুক তাহের, প্রণব চৌধুরী, বনকুসুম বড়–য়া, শাহেদুল ইসলাম, ইকবাল হোসেন জুয়েল, অনির্বান চৌধুরী, জেবুন নাহার শারিমন, শাহরিয়ার তানজিম, শারমিন মুস্তারী নাজু, শাহাদাত হোসেন, উমে সিং মারমা, বর্ষা চৌধুরী, ঐশী পাল, তৌফিক হোসাইন, সুষ্মিতা দত্ত, রবি ভৌমিক, মৌ দত্ত, শারমিন সুলতানা, সাফা মারওয়া, কারিশমা কবির, মুফরাত হোসেন, রাজেশ্বরী চৌধুরী, জেরিন আহমেদ।
কবিতাপাঠ করেন কবি হাফিজ রশিদ খান, হোসাইন কবির, আশীষ সেন, মোহাম্মদ জোবায়ের, মনিরুল মনির, আলী প্রয়াস ও রিমঝিম আহমেদ।
ছড়াপাঠ করেন ছগাকার উৎপল কান্তি বড়–য়া, আফম মোদাচ্ছের আলী, অরুণ শীল এবং জিন্নাহ চৌধুরী।
আজ উৎসবের দ্বিতীয় ও কাল তৃতীয় দিন অনুষ্ঠান হবে অনলাইনে। আজ শনিবার রাত ৮ টায় অনলাইন আয়োজনের সূচনা করবেন উপমহাদেশের প্রখ্যাত আবৃত্তিশিল্পী ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়। উদ্বোধনী আবৃত্তিতে থাকবেন আবৃত্তিশিল্পী সুমন্ত্র সেনগুপ্ত এবং কথামালায় থাকবেন বিশিষ্ট আবহশিল্পী শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন আবৃত্তি করবেন ভারতের বিভিন্ন রাজ্য থেকে আমন্ত্রিত শিল্পীরা। বিজ্ঞপ্তি