শিক্ষাক্ষেত্রে বৈষম্য দূর করতে হবে

165

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সমাবেশ

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ চট্টগ্রাম বিভাগীয় শাখার শিক্ষক সমাবেশ ও সাংগঠনিক সভায় স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ (স্বাশিপ) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু বলেছেন, শিক্ষাক্ষেত্রে সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থার বৈষম্য দূর করতে হবে। একটি উন্নত ও টেকসই শিক্ষাব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করতে হলে শিক্ষা জাতীয়করণের মাধ্যমে সমগ্র শিক্ষা ব্যবস্থাকে সরকার মূলধারার সমন্বয় করতে হবে। বর্তমান সরকার শিক্ষা ও শিক্ষকবান্ধব। তবে বেসরকারি শিক্ষাক্ষেত্রে এখনো অনেক সমস্যা বিরাজমান। এসব সমস্যা দ্রুত সমাধানের দাবি জানিয়ে তিনি নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এমপিও, বদলি কার্যকর, সরকারি অনুরূপ বাড়ি ভাড়া, মেডিক্যাল ভাতা ও উৎসব ভাতা প্রদান এবং শিক্ষা ব্যবস্থা জাতীয়করণের দাবি জানান। স্বাশিপ বিভাগীয় শাখার সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক পার্থসারথি চৌধুরীর সভাপতিত্বে নগরীর কাজেম আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ মিলনায়তনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাশিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা ও কাজেম আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজ সভাপতি সাহাবুদ্দিন আহমেদ, স্বাশিপ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি মেহেরুন্নেছা, অধ্যাপক ড. হোছামুদ্দীন, অধ্যক্ষ সলিমউল্লাহ সেলিম, অধ্যক্ষ মো. মুজিবুর রহমান বাবুল।
প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হকের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন মাওলানা জয়নাল আবেদীন জেহাদী, জামাল সাত্তার, অধ্যক্ষ গিয়াস উদ্দীন, আমজাদ হোসেন চৌধুরী, অধ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ সানাউল্লাহ, সৈয়দ মো. খালেদ, অধ্যাপক আনিসুল মালেক, জিয়াউদ্দিন, উপাধ্যক্ষ রেজাউল করিম সিদ্দিকী, মেরি অং মারমা, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ সোলইমান কাশেমী, অধ্যাপক হারুনুর রশীদ চৌধুরী, হিতোষময় বড়–য়া, অধ্যক্ষ হামিদ হোসেন, প্রধান শিক্ষক বিষ্ণুযশা চক্রবর্ত্তী, প্রধান শিক্ষক আলী আজম, অধ্যক্ষ আবদুল মোমিন, আইরিন পারভীন, প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদ তালুকদার, প্রধান শিক্ষক জয়নাল আবেদীন, অধ্যক্ষ ফজলুল হক, অধ্যাপক মোহররম আলী, অধ্যাপক নুর হোসেন, অধ্যাপক রফিক উদ্দিন, আমেনা বেগম, শিপ্রা দাশ, খদিজা বেগম, গোলাম রসুল, অভিজিৎ চক্রবর্তী প্রমুখ।
সমাবেশে অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু বলেন, ‘বর্তমানে একটা স্বচ্ছ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিধি মোতাবেক নিয়োগের ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট ও অবসর সুবিধা বোর্ড স্বচ্ছতার সাথে পরিচালিত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সুবিধাবাদী গোষ্ঠী মিথ্যাচারের আশ্রয় নিয়ে শিক্ষক মহলকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে’।
তিনি বলেন, শিক্ষকদের বৈষম্য ও নির্যাতনের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে রাখলে সমৃদ্ধ সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয়। শিক্ষা জাতীয়করণের মাধ্যমেই এ বৈষম্য দূরীকরণ হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
এলক্ষ্যে তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সকল শিক্ষক সমাজকে স্বাশিপের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ায় আহ্বান জানান। বিজ্ঞপ্তি