‘শচীন ভারতরত্ন পাওয়ার যোগ্যই নয়’

0
108

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
মাত্র দু’দিন আগে ‘ক্রিকেটের ঈশ্বরে’র ছবিতে কালি মাখিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছিল যুব কংগ্রেসের কর্মীরা। এবার শচীন টেন্ডুলকারকে ভারতরত্ন পাওয়ার ‘অযোগ্য’ বলে মন্তব্য করলেন এক কংগ্রেস সাংসদ। কৃষি আইন নিয়ে কেন্দ্রকে সমর্থন করে মুখ খুলেছিলেন শচীন টেন্ডুলকার-সহ একাধিক ভারতীয় তারকা। এর পর থেকেই একের পর এক কুৎসিত আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে ভারতীয় এই ক্রিকেটারকে।
রোববার পাঞ্জাবের কংগ্রেস সাংসদ জসবীর গিল কদর্য ভাষায় আক্রমণ করলেন শচীনকে। বললেন, ‘শচীন টেন্ডুলকার ভারতরতœ পাওয়ার যোগ্য নন। কৃষি আইন নিয়ে কেন্দ্রের সমর্থনে তার টুইট করার পিছনে বিশেষ কারণ রয়েছে। সরকারের কাছ থেকে তিনি বিশেষ কিছু প্রত্যাশা করেন।’ জসবীরের কথায়, ‘শচীন চান তার ছেলে অর্জুন যাতে আইপিএল খেলতে পারেন। সেই সুবিধা পাওয়ার জন্যই টুইট করেছেন উনি।’ এরপরই কংগ্রেস সাংসদের প্রশ্ন, ‘এবার আমজনতা ঠিক করুক শচীন আদৌ ভারতরত্ন পাওয়ার যোগ্য কি না।’ তার এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন নেটিজেনরা।
উল্লেখ্য, কৃষকদের আন্দোলনের পাশে দাঁড়িয়ে ভারতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন বিশ্বখ্যাত পপস্টার রিহানা, কিশোরী পরিবেশকর্মী গ্রেটা থুনবার্গ থেকে প্রাক্তন পর্নস্টার মিয়া খালিফা। পালটা সোচ্চার হন ভারতীয় ক্রীড়াবিদ ও বিনোদুনিয়ার তারকারা। অন্যান্য তারকার পাশাপাশি মাস্টার ব্লাস্টার টুইট করেন, ‘ভারতের সার্বভৌমত্বের সঙ্গে কোনও আপস নয়। বিদেশি শক্তি দর্শক হতে পারে, দেশের কোনও ঘটনার অংশীদার নয়। ভারতীয়রা দেশকে ভাল করেই চেনেন এবং দেশের সম্পর্কে নিজেরাই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। আমাদের সকলের ঐক্যবদ্ধ থাকা উচিত।’ এর পর থেকেই একাধিক কুরুচিকর আক্রমণের মুখে পড়তে হচ্ছে তাকে। যদিও একাধিক রাজনৈতিক নেতার অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকার শচীনকে কার্যত বাধ্য করেছেন এই টুইট করতে।
শুক্রবারই কেরলে তার কাট আউটে কালি মাখিয়ে দেন যুব কংগ্রেসের একদল কর্মী। সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিতর্ক শুরু হয়। দেশের সমস্ত বিষয়ে কথা না বলার পরামর্শ দিয়েছেন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারও। এর মাঝেই ফের বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন কংগ্রেস সাংসদ।