লকডাউনে শুটিংয়ে অক্ষয়

0
223

সুপ্রভাত ডেস্ক :
লকডাউনের মধ্যেই মুম্বইয়ের কমলিস্তান স্টুডিয়োতে শুটিং করলেন অক্ষয় কুমার। প্রায় দু’মাস বাড়ি বসে সচেতনতামূলক ভিডিয়ো পোস্ট করার পর অবশেষে মাঠে নেমে হাতে কলমে কাজ অক্ষয়ের। জানা গিয়েছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের এক সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপন শুটের জন্যই স্টুডিয়োতে এসেছিলেন অক্ষয়। পরিচালনায় ছিলেন ‘প্যাডম্যান’, ‘কি অ্যান্ড কা’ খ্যাত আর বাল্কি।
মহারাষ্ট্র সরকারের কাছ থেকে আগে থেকেই অনুমতি নেওয়া ছিল। শুটিং টিমের তরফ থেকে জানান হয়েছে, সমস্ত নিয়ম মেনেই শুটিং করা হয়েছে। সেটে মাত্র ২০ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
বিজ্ঞাপনটির প্রযোজক অনিল নাইডু বলেন, সম্পূর্ণ শুটিং প্রক্রিয়াটি দু’ঘণ্টার মধ্যে শেষ করা হয়েছে। অক্ষয় নিজেই গাড়ি চালিয়ে শুটিংয়ে এসেছিলেন। বাড়িতেই তার মেকআপ করা হয়েছিল। সেটে জীবাণুরোধক টানেল রাখা হয়েছিল। প্রত্যকেই মাস্ক পরেছিলেন। সকলের তাপমাত্রা পরীক্ষার জন্য উপস্থিত ছিলেন একজন ডাক্তারও। প্রতি মুহূর্তে সেটের সমস্ত জিনিসপত্র স্যানিটাইজ করার ব্যবস্থা ছিল।’
নাইডু আরও জানান, ‘যে মুহূর্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে আমাদের এই বিজ্ঞাপনটি শুট করার কথা জানান হয়, সেই মুহূর্তে মহারাষ্ট্র পুলিশের সঙ্গে আমারা যোগাযোগ করি। কত জন কাজ করব, কীভাবে কাজ হবে তার বিস্তারিত বিবরণও পুলিশকে জানাতে হয় আমাদের। এর পরেই যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়।’ ইতিমধ্যেই সেই শুটের কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। সেখানেই দেখা গিয়েছে, টেকনিশিয়ান, অভিনেতা, পরিচালক সহ সকলেই মাস্ক পরিহিত। হাতে রয়েছে গ্লাভসও। হাতে স্যানিটাইজার লাগানোর জন্যও নিযুক্ত করা হয়েছে লোক।
নিয়ম মেনে শুট তো হল, কিন্তু এ তো শুধুই বিজ্ঞাপন, তাও দু’ঘন্টার মধ্যে শুটিং শেষ। দীর্ঘ সময়ের শুটিংয়ের ক্ষেত্রে এত সব নিয়মকানুন কী ভাবে মানবে ইন্ডাস্ট্রি?
খবর : আনন্দবাজার’র।