রাঙামাটি সন্ত্রাসী হামলায় জনসংহতি সমিতির ২ সদস্য নিহত

0
147

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি  :
রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ওয়া¹া ইউনিয়নের গর্জনিয়া এলাকায় প্রতিপক্ষের সশস্ত্র হামলায় সুভাষ তনচঙ্গ্যা (৪৫) ও ধনঞ্জয় তনচঙ্গ্যা (৩২) নামের দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।
কাপ্তাই থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাসিরউদ্দিন জানিয়েছেন, বুধবার ভোর তিনটার দিকে অজ্ঞাত পরিচয় একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী ধনঞ্জয় চাকমার বাড়িতে এসে তাকে ও সুভাষকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে গুলি করে। ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান।
নিহত ধনঞ্জয় গর্জনিয়া পাড়ার রনজিত কার্বারির পুত্র। সুভাষের বাড়ি রাজস্থলী উপজেলায়, তিনি সেখানকার ছাখ্যং গ্রামের মৃত কালাচান তনচঙ্গ্যার পুত্র। সুভাষ সপরিবারে ওয়া¹া ইউনিয়নের কাঠালতলি এলাকায় বসবাস করতেন। ঘটনার সময় তিনি ধনঞ্জয়ের বাসাতেই ছিলেন।
পুলিশের এই কর্মকর্তা স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন, নিহত দু’জনই পাহাড়ের আঞ্চলিক দল জনসংহতি সমিতির সদস্য বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। হামলাকারীরাও অন্য কোন আঞ্চলিক দলের কর্মী হতে পারে।
পুলিশের কাপ্তাই সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জুনায়েদ কাউসার জানিয়েছেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং লাশ উদ্ধার করে পোস্টমর্টেম এর জন্য পাঠানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। প্রাথমিকভাবে সুভাষের শরীরে ২টি এবং ধনঞ্জয়ের শরীরে ৫টি গুলির ক্ষত দেখা গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
তবে পাহাড়ের আঞ্চলিক দলগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করেও এই সম্পর্কিত তথ্য যাচাই করা সম্ভব হয়নি। ফলে নিহত দুই ব্যক্তি জনসংহতি সমিতির কোন গ্রুপের সদস্য কিংবা হামলাকারী কোন গ্রুপের সেই সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।