যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৬৮,৪২৮ জন আক্রান্তের নতুন রেকর্ড

0
269

সুপ্রভাত ডেস্ক :

যুক্তরাষ্ট্রে বৃহস্পতিবার মহামারি করোনা ভাইরাসে নতুন করে আরও ৬৮ হাজার ৪২৮ জন আক্রান্ত হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার হিসাবে এ ভাইরাসে আক্রান্তের এটি আরেকটি নতুন রেকর্ড। জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে এ তথ্য জানা যায়। খবর এএফপি’র।
স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টা পর্যন্ত (গ্রিনিচ মান সময় শুক্রবার ০০৩০ টা) বাল্টিমোর ভিত্তিক ওই ইউনিভার্সিটির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ ভাইরাসে নতুন করে আরও ৯৭৪ জন প্রাণ হারিয়েছে।
এ বৈশ্বিক মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে মোট ১ লাখ ৩৮ হাজার ২০১ জনে এবং আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে মোট ৩৫ লাখ ৬০ হাজার ৩৬৪ জনে দাঁড়ালো।
বিশ্বে মহামারি করোনা ভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। ফলে, দেশটিতে আক্রান্তের ও মৃতের সংখ্যা অন্য যেকোন দেশের তুলনায় অনেক বেশি।
বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্র কখনোই তাদের দেশের করোনা আক্রান্তের প্রথম ঢেউ থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে, বিশেষকরে দেশটির দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ফের অনেক বেড়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। এতে এ দুই অঞ্চলের রাজ্যগুলোর ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ফের খুলে দেয়ার প্রক্রিয়া থেমে গেছে। এসব অঞ্চলে বর্তমানে মাস্ক পরার ওপর বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে এবং করোনার বিস্তার রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ ফের জোরদার করা হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ক্ষেত্রে বর্তমানে ফ্লোরিডা একটি নতুন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। রাজ্যটিতে বৃহস্পতিবার কোভিড-১৯ রোগে সরকারি হিসাবে নতুন করে আরও ১৫৬ জনের মৃত্যু এবং প্রায় ১৪ হাজার আক্রান্ত হয়েছে।
ফ্লোরিডা স্বাস্থ্য বিভাগের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এনিয়ে এ ‘সানশাইন স্টেটে’ করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ১৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে এবং মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ৭৮২ জনে দাঁড়িয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের অন্য যেকোন রাজ্যের তুলনায় এখন ফ্লোরিডায় প্রাত্যহিক হিসাবে সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে। প্রতিদিনের আক্রান্তের দিক থেকে এর পরের অবস্থানে রয়েছে ক্যালিফোর্নিয়া ও টেক্সাস। এ দুই রাজ্যে প্রতিদিন নতুন করে প্রায় ১০ হাজার করে আক্রান্ত হতে দেখা যাচ্ছে।