ম্যারাডোনার দেয়াল চিত্র ‘সেন্ট’ উন্মোচন

0
139

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
প্রয়াত ফুটবল কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনাকে শ্রদ্ধা জানানো তার সম্মানে একটি স্টেডিয়াম এবং একটি রাস্তার নামকরণ করা হয়েছে। এমনকি তার ছবি দিয়ে ব্যাংক নোট ছাপানোর পরিকল্পনাও রয়েছে। এবার আর্জেন্টিনায় এই ফুটবল আইকনকে স্মরণ রাখার জন্য আঁকা হয়েছে একটি বিশাল দেয়াল চিত্র। খবর : বার্তা২৪’র।
জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে শিল্পী আলফ্রেডো সেগেটেরি (৫০) আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস আইরেসে ২০ মিটার উঁচু এবং ৪০ মিটার প্রশস্ত এই চিত্রটি এঁকেছেন। চিত্রটি ঐতিহ্যবাহী বোকার নামক এলাকার আশেপাশে আঁকা হয়েছে। যেখানে বোম্বোনেরা স্টেডিয়াম রয়েছে। এক সময় ম্যারাডোনা সেখানকার স্থানীয় ছোট বাচ্চাদের সাথে খেলত।
সেগেটোরি বলেন, আমি বলি আমার একটি ধর্ম আছে। সেই ধর্ম হলো ডিয়েগো। আমি দিয়াগোতে বিশ্বাস রাখতে চাই। এ জাতীয় প্রকল্প সম্পর্কে দীর্ঘদিন ধরেই চিন্তা করছিলাম। তবে এটি সবসময়ই ‘পরবর্তী সময়ের জন্য’ ছিল। ম্যারাডোনা ক্রিয়াবিদের পাশাপাশি শিল্পীদের জন্য একজন পৃষ্ঠপোষকও ছিলেন। এই ছবিটি তাকেই উৎসর্গ করে।
ম্যারাডোনাকে ‘সেন্ট’ বলার ধারণাটি নতুন না। ১৯৯৮ সালে যখন একদল ভক্ত এই ‘ফুটবল ঈশ্বরের’ নামে চার্চ নির্মাণ করে তখন ফ্র্যাংকো-স্প্যানিশ সংগীতশিল্পী ম্যানু চাও ‘সেন্ট ম্যারাডোনা’ সম্পর্কে একটি গান লিখেছিলেন।
সেগেটোরির এই দেয়াল চিত্রে দেখা যায় ১৯৮৬ সালের ফুটবল বিশ্বকাপের মাঠা ম্যারাডোনা একটি বল চেপে ধরেছিলেন। ওই আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিতে এবং এর নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ম্যারাডোনা।
৬০ বছর বয়সী এই ফুটবল সুপারস্টার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৬ নভেম্বর। বিশ্বের সেরা ফুটবলার মানা হতো তাকে। আর্জেন্টিনা জুনিয়র্সের হয়ে ফুটবল ক্যারিয়ার শুরু করা ম্যারাডোনা সেই ক্লাবে খেলেন ১৯৭৬ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত। তারপর তিনি ইউরোপের বিভিন্ন ক্লাবে খেলেন। ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে নেতৃত্ব দেন ম্যারাডোনা। মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত সেই বিশ্বকাপে দুর্দান্ত পারফরমেন্স করে আর্জেন্টিনাকে বিশ্বকাপ জেতান ম্যারাডোনা।