মিসরাইয়ে বিএসআরএম কারখানা থেকে গ্রেনেড উদ্ধার

0
364

নিজস্ব প্রতিনিধি, মিরসরাই :

বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস (বিএসআরএম) লিমিটেডের মিরসরাইয়ের সোনাপাহাড় কারখানা থেকে একটি তাজা গ্রেনেড উদ্ধার করা হয়েছে। পরে বুধবার সন্ধ্যায় গ্রেনেডটি সিএমপির কাউন্টারটেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরা নিষ্ক্রিয় করে। কারখানায় গ্রেনেড কিভাবে এল বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।
বিএসআরএম স্টিল মিলস লিমিটেড এর মিরসরাইয়ের সোনাপাহাড় কারখানার এডমিন ইনচার্জ দেলোয়ার হোসেন মোলস্না জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় দেশের বাইরে থেকে আমদানিকৃত স্টিল স্ক্র্যাপে গ্রেনেড সদৃশ্য একটি বস্তু দেখা যায়।

পরে বিষয়টি জোরারগঞ্জ থানা পুলিশকে জানানো হয়। বুধবার বিকেল তিনটায় জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে গ্রেনেডটি শনাক্ত করে।
জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম জানান, বিএসআরএম কারখানায় গ্রেনেড পাওয়া খবর পেয়ে আমরা দ্রম্নত ঘটনাস্থলে পৌছে যাই। পরে লোহার রড তৈরির কাঁচামালের মধ্যে একটি গ্রেনেড সদৃশ বস্তু বিপজ্জনকভাবে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তখন সিএমপির কান্টার টেরোরিজম ইউনিটের বোম্ব ডিজপোজাল সদস্যদের খবর দেয়া হয়।
এদিকে বিএসআরএম কারখানায় গ্রেনেড পাওয়ার খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে কর্মকর্তা কর্মচারীদের মাঝে আতংক দেখা দেয়। বিএসআরএম কারখানার গেইটে স্ক্যানার থাকলেও সেটি কেন ধরা পড়েনি তা নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।
জোরারগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন জানান, বুধবার সন্ধ্যায় কারখানার দড়্গিণে একটি খোলা মাঠে গ্রেনেডটির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। বিষয়টি তদনত্ম করে দেখা হচ্ছে।