মাস্টার বাদল ভৌমিক সবার অনুপ্রেরণা

64

শোকসভায় বক্তারা

বোয়ালখালী উপজেলার বিপ্লবতীর্থ সারোয়াতলী গ্রামে শাকপুরা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বাদল কান্তি ভৌমিকের শোকসভা বিপ্লবী তারকেশ্বর দস্তিদার স্মৃতি পরিষদের সভাপতি প্রধান শিক্ষক অঞ্জন কান্তি চৌধুরীর ও অর্থ সম্পাদক তপন ভট্টাচার্য্য এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আশালতা কলেজের অধ্যক্ষ জনার্দন বণিক, প্রধান বক্তা সমাজ চিন্তাবিদ অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্তী, বিশেষ অতিথি সানোয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কৃষ্ণ শেখর দত্ত, অরবিন্দ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক বিজয় শঙ্কর চৌধুরী, লাখেরা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সঞ্জীব চৌধুরী, সাহিত্যিক ও ঔপন্যাসিক দুলাল মল্লিক, প্রধান শিক্ষক উত্তম চক্রবর্তী, সাংগঠিক ও দানশীল ব্যক্তি অরুন মল্লিক, সিটিবির চেয়ারম্যান ডা. নারায়ণ মজুমদার, শারদাঞ্জলি ফোরাম এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শিক্ষক অজিত কান্তি শীল, শিমুল ভৌমিক, শাকপুরা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ৯৩ ব্যাচ এর ছাত্রদের পক্ষ হতে উপস্থিত ছিলেন শ্যামল দাশ।
সভায় বক্তারা বলেন, বাদল কান্তি ভৌমিক ৩৭ বছরের শিক্ষকতা জীবনে আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। ২৬ বছর শাকপুরা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও বাকি ১৩ বছর দক্ষিণ ভূর্ষি উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষাদান করেছেন।
বাদল কান্তি ভৌমিকের বন্ধু শিক্ষক বিজয় শংকর চৌধুরী বলেন, এক সাথে শাকপুরা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার কারণে খুবই কাছ থেকে শিক্ষক বাদল কান্তি ভৌমিকের আদর্শকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে। তিনি নির্দিষ্ট সময়ের আগেই ক্লাসে গিয়ে উপস্থিত হতেন, খুবই আন্তরিকভাবে ছাত্রদের পাঠদান করতেন এবং দুর্বল ছাত্রদের পরবর্তীতে, যেকোন সময় প্রয়োজন মনে করলে সরাসরি যোগাযোগ করার জন্য উপদেশ দিতেন। যাহা বর্তমান সমাজে খুবই বিরল। তাহার আয়ব্যয় এর হিসাব দেখে মুগ্ধ হয়ে স্কুলের পরিচালনা ও পুকুরের সকল হিসাব রাখার জন্য সকল শিক্ষকরা একত্রিত হয়ে অনুরোধ করায় সুদীর্ঘ পনের বছর বিনা পারিশ্রমিকে আনন্দের সহিত দ্বায়িত্ব পালন করেছিলেন।
তিনি সবসময় বলতেন, স্বল্প টাকা দিয়ে সৎভাবে থেকে সুন্দর জীবনযাপন করা যায়। দামী পোশাক ও দামী আহার পছন্দ করতেন না। পাঠদানের ফাঁকে ছাত্রদের পান্তাভাত দিয়ে কাঁচামরিচ, ডালভাত দিয়ে পেটভরে খেয়ে স্কুলে আসার উপদেশ দিতেন।
এরকম গুণী, সফল শিক্ষক চিরদিন সবার প্রেরণা ও আদর্শ হয়ে থাকবেন বলে বক্তারা জানান। বিপ্লবী তারকেশ্বর দস্তিদার স্মৃতি পরিষদের পক্ষ থেকে শোকাহত পরিবারকে শোকপত্র প্রদান করা হয়। বিজ্ঞপ্তি