‘মনে হচ্ছিল ঈশ্বরের সঙ্গে হ্যান্ডশেক করছি’

0
218

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
অবসরের বর্ষপূর্তিতে গতকাল অর্থাৎ বুধবার অনুরাগীদের আবেগঘন বার্তায় ভরে গিয়েছিল যুবরাজ সিং’য়ের ইনবক্স। হাজার-হাজার অনুরাগীদের বার্তার পাশাপাশি জ্বলজ্বল করছিল একজন বিশেষ মানুষের বিশেষ বার্তাও। তিনি হলেন শচীন রমেশ তেন্ডুলকর। জাতীয় ক্যাম্পে সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতের স্মৃতি রোমন্থন করে অবসরের বর্ষপূর্তিতে যুবিকে বিশেষ বার্তা দেন মাস্টার-ব্লাস্টার।
এবার পালটা মাস্টার-ব্লাস্টারের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতের স্মৃতিচারণা করলেন জাতীয় দলের প্রাক্তন তারকা অল-রাউন্ডার। কঠিন সময়গুলোতে পাশে থাকার জন্য এবং নিজের প্রতি বিশ্বাস বাড়াতে সহযোগীতা করার জন্য সিনিয়রকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করলেন যুবি।
দু’জনের একটি ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় গতকাল যুবরাজকে নিয়ে বিশেষ বার্তায় শচীন লেখেন, ‘একবছর হয়ে গেল তুমি অবসর নিয়েছো। তোমাকে নিয়ে আমার প্রথম স্মৃতি চেন্নাই ক্যাম্পে। দেখেই মনে হয়েছিল দারুণ অ্যাথলেটিক তুমি একইসঙ্গে পয়েন্টে ভীষণ দ্রুত। তোমার ছক্কা হাঁকানোর ক্ষমতা না হয় নাই বললাম। তুমি প্রমাণ করেছো যে বিশ্বের যে কোনও মাঠ তুমি ছক্কা হাঁকিয়ে পার করতে পারো।’
পালটা যুবি লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ মাস্টার। তোমার সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতে আমার মনে হয়েছিল আমি স্বয়ং ঈশ্বরের সঙ্গে করমর্দন করছি। কঠিন সময়গুলোতে সবসময় তুমি আমার পাশে থেকেছো। আমাকে শিখিয়েছো নিজের ক্ষমতার প্রতি বিশ্বাস রাখতে। আমিও চেয়েছিলাম তরুণ প্রজন্মের জন্য আমি কিছু দৃষ্টান্ত স্থাপন করব যেমনটা তুমি আমার ক্ষেত্রে করেছিলে। তোমার সঙ্গে আরও সব সুন্দর সুন্দর মুহূর্ত তৈরির অপেক্ষায় আছি।’
এর আগে বুধবার হঠাতই ‘মিস ইউ যুবি’ হ্যাশ-ট্যাগে ভরে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া। ছয় ছক্কার নায়কের অবসর গ্রহণের বর্ষপূর্তিতে তাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আবেগঘন পোস্টের ঝড় তোলেন অনুরাগীরা। অনুরাগীদের ভালোবাসা পেয়ে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে অবসরের বর্ষপূর্তিতে বার্তা দেন যুবরাজ নিজেও। এক বার্তায় যুবি লেখেন, ‘প্রিয় ফ্যানেরা, আমি আপ্লুত একইসঙ্গে তোমাদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ। ক্রিকেট সবসময় আমার জীবন হয়ে থাকবে। যেমনভাবে তোমরাও আমার জীবনে সবসময় অঙ্গাঙ্গিকভাবে জড়িয়ে থাকবে।’
যুবি আর লেখেন, ‘একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে কোভিড১৯-কে হারাতে এই মুহূর্তে আমাদের উচিত সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলা। একইসঙ্গে আসুন কঠিন পরিস্থিতিতে প্রয়োজনীয় মানুষের পাশে দাঁড়াই আমরা।’
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।