ভারত থেকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সরিয়ে নেওয়ার হুমকি আইসিসি’র

0
192

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
কর সংক্রান্ত সমস্যা না মেটালে ভারত থেকে আগামী বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সরিয়ে নেওয়া হতে পারে। বুধবারই বোর্ডকে একপ্রকার ‘হুমকি মেল’ পাঠিয়েছিল আইসিসি। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার এই হুমকিতে একেবারেই বিচলিত নয় ভারতীয় বোর্ড। বোর্ড কর্তারা বলছেন, চিন্তার কোনও কারণ নেই। এ নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চলছে। সব সময়মতো মিটে যাবে।
উল্লেখ্য, কোনও দেশে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্ট আয়োজন করলে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ করছাড় পায় আইসিসি। সংশ্লিষ্ট দেশের বোর্ডকে এই করছাড়ের ব্যাপারটি নিশ্চিত করতে হয়। এ বছর বিসিসিআইকে ১৮ মে পর্যন্ত সময় দিয়েছিল আইসিসি। বলা হয়েছিল, এই সময়কালের মধ্যে করছাড়ের ব্যাপারটা নিশ্চিত করে দিতে। গত জানুয়ারিতে খোদ বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে এ নিয়ে চিঠি পাঠান আইসিসির চিফ এক্সিকিউটিভ মনু শাহনে। এপ্রিলের শুরুতে এমনই একটি মেল আসে জয় শাহর কাছে। কিন্তু লকডাউনের জন্য করের ব্যপারটি এখনও মিটিয়ে উঠতে পারেনি ভারতীয় বোর্ড। তারা চিঠি লিখে আইসিসির কাছে ৩০ জুন পর্যন্ত সময় চেয়েছে। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা তাতে সন্তুষ্ট নয়। বুধবার একটি মেল পাঠিয়ে তারা বিসিসিআইকে হুমকি দিয়েছে, ভারত যদি কর সমস্যা না মেটাতে পারে, তাহলে আগামী বছর ভারত থেকে টি-২০ বিশ্বকাপই সরিয়ে নেওয়া হবে।
উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে টি-২০ বিশ্বকাপের সময়ও একই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। সেবারেও গড়িমসির জন্য শেষপর্যন্ত করছাড় নিশ্চিত করতে পারেনি বিসিসিআই। সেবার ভারতের লাভের অংশ থেকে জরিমানা হিসেবে টাকাটা তুলে নেই আইসিসি। কিন্তু এবার তারা অত ঝামেলায় যেতে চায় না। সরাসরি টুর্নামেন্ট সরিয়ে নেওয়ার কথাই ভাবছে আইসিসি। যদিও বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধূমল জানিয়ে দিয়েছেন, এতে চিন্তার কোনও কারণ নেই। টুর্নামেন্ট সরে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। বিসিসিআই সরকারের সঙ্গে আলোচনা করছে। এটা একটা প্রক্রিয়া। যা চলছে। টুর্নামেন্ট সরে যাওয়ার কোনও ঝুঁকি নেই।
খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।