ভারতকে গুঁড়িয়ে ইংল্যান্ডের দারুণ জয়

0
83

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
আগের টেস্টেই ইতিহাস গড়েছিল ভারত। ৩২৮ রানের ভীষণ কঠিন লক্ষ্য তাড়া করে জয় করেছিল ব্রিজবেন দুর্গ। দেশের মাটিতে চ্যালেঞ্জ ছিল এর চেয়েও কঠিন, লক্ষ্য ছিল আরও বড়। ৯ উইকেট হাতে নিয়ে শেষ দিনে খুব একটা লড়াই-ই করতে পারেনি বিরাট কোহলির দল। জেমস অ্যান্ডারসন, জ্যাক লিচদের নৈপুণ্যে চেন্নাই টেস্টে ইংল্যান্ড জিতেছে অনায়াসেই। খবর বিডিনিউজের।
প্রথম টেস্টে ২২৭ রানে জিতে চার ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে সফরকারীরা। এশিয়ায় টেস্টে এটি তাদের টানা ষষ্ঠ জয়। ৪২০ রানের প্রায় অসম্ভব লক্ষ্য তাড়ায় পঞ্চম দিন ১৯২ রানে গুটিয়ে গেছে ভারত। কোহলিদের দ্বিতীয় সেশনে থামিয়ে দিয়ে ২০১২ সালের পর দেশটিতে প্রথম জয় পেল ইংল্যান্ড।
২০১৭ সালের পর দেশের মাটিতে এটিই ভারতের প্রথম হার। সেবার পুনেতে অস্ট্রেলিয়া জিতেছিল ৩৩৩ রানে। এম এ চিদাম্বরাম স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার ১ উইকেটে ৩৯ রান নিয়ে দিন শুরু করে ভারত। অসমান বাউন্স ও তীক্ষè বাঁকের জন্য স্বাগতিকদের সামনে ছিল ভীষণ কঠিন চ্যালেঞ্জ। দলকে পথ দেখাতে পারতেন যিনি সেই চেতেশ্বর পুজারা ফিরে যান সবার আগে। আগের দিন রোহিত শর্মাকে ফেরানো লিচ থামান পুজারাকে। তীক্ষ্ণ বাঁক নেওয়া বাড়তি লাফানো বল ব্যাটের শোল্ডারে লেগে যায় প্রথম সিøপে বেন স্টোকসের হাতে। মন্থর উইকেটে প্রাণ জাগান অ্যান্ডারসন। শুরুটা করেন আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ফিফটি করা শুবমান গিলকে বোল্ড করে। সঙ্গে ৩০ পেরুনোর পর টেস্টে সবচেয়ে বেশি উইকেট নেওয়ার তালিকায় স্পর্শ করেন কোর্টনি ওয়ালশকে (৩৪১)।
শূন্য রানে অজিঙ্কা রাহানেকে বোল্ড করে ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তিকে ছাড়িয়ে যান অ্যান্ডারসন। ঝড় তোলার আগে রিশাব পান্তকেও থামান ৩৮ বছর বয়সী এই পেসার। শুরুতেই ভারতকে এলোমেলো করে দেওয়া অ্যান্ডারসনের স্পেল ছিল এমন ৫-৩-৬-৩।
এরপর প্রায় একাই লড়াই করে গেছেন কোহলি। কিন্তু কারও কাছ থেকে মেলেনি খুব একটা সহায়তা। পান্ত ছাড়া শেষ সাত ব্যাটসম্যানের কেউ যেতে পারেননি দুই অঙ্কে।স্টোকসের দুর্দান্ত এক রিভার্স সুইংয়ে বোল্ড হয়ে থামেন ভারত অধিনায়ক। ১০৪ বলে খেলা তার ৭২ রানের ইনিংস গড়া ৯ চারে।
রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও শাহবাজ নাদিমকে ফিরিয়ে ১৯৩৪ সালের পর প্রথম ইংলিশ বোলার হিসেবে ভারতে চতুর্থ ইনিংসে ৫ উইকেট পাওয়ার আশা জাগান লিচ। শেষ পর্যন্ত পারেননি তিনি। জাসপ্রিত বুমরাহকে কট বিহাইন্ড করে আট বছরের মধ্যে ভারতের মাটিতে ইংল্যান্ডকে প্রথম জয় এনে দেন জফ্রা আর্চার। লিচ ৭৬ রানে নেন ৪ উইকেট। অ্যান্ডারসন ৩ উইকেট নেন ১৭ রানে। শততম টেস্টে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তি গড়া রুট জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।আগামী শনিবার চেন্নাইয়েই শুরু হবে দ্বিতীয় টেস্ট।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৫৭৮
ভারত ১ম ইনিংস: ৩৩৭
ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: ১৭৮
ভারত ২য় ইনিংস: (লক্ষ্য ৪২০, আগের দিন ৩৯/১) ৫৮.১ ওভারে ১৯২ (গিল ৫০, পুজারা ১৫, কোহলি ৭২, রাহানে ০, পান্ত ১১, সুন্দর ০, অশ্বিন ৯, নাদিম ০, ইশান্ত ৫*, বুমরাহ ৪; আর্চার ৯.১-৪-২৩-১, লিচ ২৬-৪-৭৬-৪, অ্যান্ডারসন ১১-৪-১৭-৩, বেস ৮-০-৫০-১, স্টোকস ৪-১-১৩-১)।
ফল: ইংল্যান্ড ২২৭ রানে জয়ী
সিরিজ: ৪ ম্যাচের সিরিজে ইংল্যান্ড ১-০ তে এগিয়ে
ম্যান অব দা ম্যাচ: জো রুট