ভাইজিকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ নওয়াজের ভাইয়ের বিরুদ্ধে

0
200

সুপ্রভাত ডেস্ক :
বিচ্ছেদের পর থেকেই একের পর এক বিতর্কে জড়িয়েছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি। কখনও প্রাক্তন স্ত্রীকে শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগ উঠেছে তার পরিবারের বিরুদ্ধে, তো আবার কখনও বা তার বিবাহবিচ্ছেদের মামলা নিয়ে কাদা ছোড়াছুঁড়ি হয়েছে জনসমক্ষে। এবার ফের নতুন করে বিতর্কে জড়ালো নওয়াজের নাম। যদিও এবারের ঘটনার ‘মধ্যমণি’ অভিনেতার ভাই। কিশোরী ভাইজিকে যৌন হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। যার জেরে নওয়াজের ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে দিল্লির জামিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন অভিনেতার ভাইজি। তবে তার ‘নওয়াজ কাকা’কে নিয়েও অভিযোগ রয়েছে। সেটাও নেহাত তুচ্ছ ব্যাপার বলে অগ্রাহ্য করার নয়!
অভিযোগনামায় নওয়াজের ভাইজি জানিয়েছেন, তার যখন মাত্র ২ বছর বয়স, তখন বাবা-মায়ের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। ফলে সৎ মায়ের কাছেই বড় হতে হয় তাকে। সেসময়ে বাড়ির সদস্যরা তার সঙ্গে খুব অভব্য আচরণ করতেন। তারই সুযোগ নিতেন কাকা। মাত্র ৯ বছর বয়সে তাকে অদ্ভূতভাবে স্পর্শ করতেন। প্রথমে বুঝতে পারেননি কিছু। কিন্তু বড় হওয়ার পর বুঝতে পারেন, সেটা আদরের স্পর্শ তো ছিলই না, বরং লালসা মাখানো দৃষ্টি-স্পর্শ ছিল। আদরের অছিলায় ছিল যৌন হেনস্তা। যেহেতু সেসময়ে তিনি কিশোরী ছিলেন, তাই অভিযোগনামায় আইনত তার নাম উল্লেখ করা হয়নি বলে খবর।
কিন্তু এতদিন বাদে অভিযোগ দায়ের করলেন কেন? নওয়াজের ভাইজি জানিয়েছেন তার স্বামী এবং শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের পাশে পেয়েই এমন পদক্ষেপ করার সাহস পেয়েছেন তিনি এতদিনে। উল্লেখ্য, যা শুনে নওয়াজের স্ত্রী আলিয়া সিদ্দিকির মন্তব্য, ‘ঝুলি থেকে বেড়ালো বেরনো এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা। নওয়াজউদ্দিনের পরিবারের ব্যাপারে এরকম আরও অনেক অশ্লীল তথ্যই জানতে পারবেন মানুষ।’
অভিনেতার ভাইজি জানিয়েছেন, কাকার যৌন নিগ্রহের শিকার হওয়া সম্পর্কে নওয়াজকে জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। কারণ, তিনিও না শোনার, না বোঝার ভানই করতেন। সংশ্লিষ্ট মহিলার কথায়, নওয়াজকাকা জানিয়েছিলাম। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। তিনি বলেছেন, কাকা হয়, এমন কখনও করতে পারেন না উনি। ভুল করছ তুমি।
খবর : সংবাদপ্রতিদিন’র।