বান্দরবানে ইটভাটায় মধ্যযুগীয় কায়দায় শ্রমিক নির্যাতন

0
280

৯৯৯ এ কল দিয়ে রক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান :
বান্দরবানে ইটভাটার শ্রমিকদের মারধর করার পর মধ্যযুগীয় কায়দায় পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে কাজ করানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার রাতে শহরের বাঘমারা এলাকার এসবিএম ব্রিকফিল্ডে এ ঘটনা ঘটে। পরে শ্রমিকরা ৯৯৯ এ কল দিয়ে জানালে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে।
জানা গেছে, বাঘমারা এলাকায় মিলন কোম্পানির এসবিএম ব্রিকফিল্ডে গত একমাস ধরে ইট টানার কাজ করছিল ১০/১২ শ্রমিক। কয়েকদিন আগে অতিরিক্ত টাকা দেয়ার কথা বলে তাদের দিয়ে অতিরিক্ত কাজ করানো হয়। সোমবার ২৮ ডিসেম্বর শ্রমিকরা তাদের অতিরিক্ত টাকা চাইলে ব্রিকফিল্ডের মাঝি শ্রমিকদের মালিকের অফিসে ডেকে নিয়ে তাদের টাকা না দিয়ে মারধর করে এবং শিকল দিয়ে বেঁধে রাখে। পরে ওই শ্রমিকরা ৯৯৯ এ কল দিলে বান্দরবান সদর থানার পুলিশ গিয়ে ৪ জন শ্রমিককে উদ্ধার করে।
এসময় ব্রিকফিল্ডের মাঝি পালিয়ে যায়। উদ্ধারকৃত শ্রমিকরা হল মো. খলিল (২৮), মো. আবুল কালাম (৩২), মো. রিয়াজ (৩০), মো. রুবেল (২৫) তারা সবাই নোয়াখালী জেলার বাসিন্দা।
এ বিষয়ে এসবিএম ব্রিকফিল্ড এর মালিক মিলন কোম্পানি বলেন, শ্রমিকরা টাকা নিয়ে ঠিকমত কাজ করছিল না। বিভিন্ন বাহানা দিয়ে কাজে ফাঁকি দিচ্ছিল তাই মাঝি তাদের কাছ থেকে কাজ আদায় করে নিতে এটা করেছে। তবে এটা ঠিক হয়নি।
বান্দরবান সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজলুর জানান, শ্রমিকদের মারধর করে পায়ে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছিল। তারা ৯৯৯ এ কল দিয়ে বিষয়টি জানালে ঘটনাস্থলে গিয়ে ৪ শ্রমিককে উদ্ধার করি। এ বিষয়ে ব্রিকফিল্ড মালিক ও মাঝির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।