ফের মার্চিং অর্ডার এড়ালেন মেসি

141

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
এক মাসও হয়নি সুপারকোপা ফাইনালে অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিরুদ্ধে লাল কার্ড দেখে মাঠে ছেড়েছিলেন। বুধবার ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়ালেন আর্জেন্তাইন ফুটবল মায়েস্ত্রো লিওনেল মেসি। বুধবার কোপা দেল রে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে সেভিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল বার্সেলোনা। ঘটনাক্রমে ওই ম্যাচ ছিল মেসির কেরিয়ারের ৯০০তম ম্যাচ। মাইলস্টোন ম্যাচে গোল তো পেলেনই না, উলটে রেফারির কিছুটা বদান্যতায় মার্চিং অর্ডার এড়ালেন বাঁ-পায়ের জাদুকর।
যদিও মেসি যে কান্ডটা এদিন মাঠে করেছেন সেটা লাল কার্ড দেখার মত অপরাধ কি না, তা নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ফুটবলমহল। তবে এটা নিশ্চিত মূলত শান্ত স্বভাবের মেসিকে মাঠে এমন উত্যক্ত হতে হাতে গোনা কয়েকবারই দেখেছে ফুটবলবিশ্ব। মোট কথা বুধবার সেভিয়া মিডফিল্ডার জোয়াও জর্ডানের সঙ্গে আর্জেন্তাইনের আচরণ তার নামের একেবারে পরিপন্থী। মাইলস্টোন ম্যাচে মেসি নিষ্প্রভ থাকায় এদিন গোল পেল না বার্সাও। ফলস্বরূপ কোপা দেল রে’র প্রথম লেগে সেভিয়ার কাছে ২-০ গোলে হেরে পিছিয়ে পড়ল কাতালান ক্লাবটি।
কিন্তু গোল না করেও যে কারণে ফের শিরোনামে মেসি, সেটা বুধবার প্রথম সেমিফাইনালের দ্বিতীয়ার্ধের ঘটনা। প্রথমার্ধে সেভিয়া ডিফেন্ডার জুলেস কুন্দের গোলে পিছিয়ে পড়ে বার্সেলোনা। ৬৩ মিনিটে বল ধরে বিপক্ষ বক্সের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় সেভিয়া মিডফিল্ডার জর্ডানের সঙ্গে হালকা সংঘর্ষ হয় মেসির। ফ্রি-কিক পায় বার্সেলোনা। কিন্তু রেফারি বাঁশি দেওয়ার পর বল হাতে তুলে নিয়ে জর্ডান সময় চুরি করে মনোসংযোগে ব্যাঘাত ঘটানোর চেষ্টা করছিলেন, যেমনটা আর পাঁচজন করে থাকেন। কিন্তু সেভিয়া মিডফিল্ডারের সেই স্ট্র্যাটেজি একেবারেই মনপসন্দ হয়নি মেসির।
এমনিতেই এক গোলে পিছিয়ে দল, তারপর সময় এগিয়ে চলেছে। এমন সময় হতাশার বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়ে জর্ডানকে প্রথমে পিছন থেকে হালকা ধাক্কা দেন মেসি। এরপর কনুই দিয়ে জর্ডানের মুখে আঘাত করে বল কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন এলএম টেন। কিন্তু আদৌ মেসির কনুই বিপক্ষ ফুটবলারের মুখ স্পর্শ করেছে কীনা, তা নিয়ে সন্দেহ আছে। যদিও রেফারি শেষ পর্যন্ত কার্ড দেখাননি। কিন্তু কার্ড দেখালেও এক্ষেত্রে অবাক হওয়ার মতো কিছু ছিল না।
এরপর বাকি সময়টাতেও মাইলস্টোন ম্যাচে কিছু ম্যাজিক দেখাতে পারেননি মেসি। উলটে ৮৫ মিনিটে প্রাক্তনী ইভান রাকিটিচ বার্সেলোনার কফিনে দ্বিতীয় পেরেকটি পুঁতে দেন। আগামী ৪ মার্চ ফিরতি লেগে সেভিয়ার মাঠে তাদের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা।