প্রিমিয়ারে স্থাপত্য বিভাগে ‘আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার ডিস্কোর্স সিরিজ’ প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত

0
206
‘আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার ডিস্কোর্স সিরিজ’-এর প্রথম পর্বের প্রধান বক্তা স্থপতি নিশ্চাল জেইন

 

স্থাপত্য বহুমাত্রিক। স্থাপত্য বহমান। সেই বহমান ধারায় বিশ্বাস রেখে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির স্থাপত্য বিভাগ কোভিড-১৯-এর মত বিপর্যস্ত পরিস্থিতির মাঝেও ছাত্র-ছাত্রীদের স্থাপত্যশিক্ষায় অনুপ্রাণিত করতে ও গুণগত শিক্ষামান বজায় রাখতে সদা সচেষ্ট। অনলাইন শিক্ষাক্রমের পাশাপাশি এই বিভাগ বহুমুখী কার্যক্রম আয়োজন করে যাচ্ছে, যার অন্যতম ‘আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার ডিস্কোর্স সিরিজ’। এটি এমন এক মাধ্যম, যার মধ্য দিয়ে পুরো বিশ্ব আজ এক সুতোয় বাধা।

সম্প্রতি প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটির স্থাপত্য বিভাগে এই ‘আন্তর্জাতিক ওয়েবিনার ডিস্কোর্স সিরিজ’-এর প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ‘হেরিটেজ কনজারভেশন এন্ড ডিজাইন’-এর উপর বিভিন্ন বিষয়ে ওয়েবিনার লেকচার প্রদানের জন্য আন্তর্জাতিক স্থপতি ও গবেষকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। প্রধান বক্তা ছিলেন ভারতীয় স্থপতি নিশ্চাল জেইন। তিনি মালাভিয়া ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি, জয়পুর, ভারতের স্থাপত্য অনুষদে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। তিনি একাধারে শুধু স্থপতিই নন, একজন প্রোডাক্ট ডিজাইনার এবং খ্যাতিমান কার্টুনিস্ট। স্থপতি নিশ্চাল এবং তার সহধর্মিণী কাভিতা এক সঙ্গে বিগত ২৩ বছর ধরে দি ফর্মস নামক আর্কিটেকচারাল প্রতিষ্ঠানের মধ্য দিয়ে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন বিভিন্ন মাধ্যমে, যেমন আর্কিটেকচারাল ডিজাইন, ইন্টেরিয়র ডিজাইন, হেরিটেজ কনজার্ভেশন, ল্যান্ডস্কেপ, আরবান প্ল্যানিং ইত্যাদি। তাদের কাজের জন্য জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তারা বিভিন্নভাবে স্বীকৃত হয়েছেন। পত্রপত্রিকায় নিয়মিতভাবে তাদের কাজ প্রকাশিত হয়ে চলেছে। ভারতের বিভিন্ন স্থানে হেরিটেজ কনজার্ভেশন নিয়ে এই স্থপতি যুগলের কাজ বেশ প্রশংসনীয়।

স্থপতি নিশ্চাল জেইন ÔDesign Wisdom in Traditional Buildings in Hot Dry Climate: Case Studies of Jaipur, India’ শীর্ষক আলোচনায় তার মূল্যবান বক্তব্য এবং দৃষ্টিকোণ তুলে ধরেন। দীর্ঘ ৩ ঘণ্টার এই আলোচনায় উঠে এসেছে কিভাবে একটি স্থান বা অঞ্চলের ভৌগোলিক অবস্থান, আবহাওয়া ও জলবায়ু পারিপার্শ্বিকতা, সংস্কৃতি, সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটকে বিবেচনায় রেখে স্থাপত্যের বিনির্মাণ করা যায়।

স্থপতি নিশ্চাল জেইন তুলে ধরেছেন জয়পুরের বিভিন্ন দৃষ্টান্তমূলক স্থাপনার নিদর্শন যা সকল শ্রোতাদের ভীষণভাবে অনুপ্রাণিত করেছে। প্রফেসর ও চেয়ারম্যান স্থপতি সোহেল মোহাম্মদ শাকুর-এর পরিচালনায়, প্রভাষক ও স্থপতি প্রিনিয়া আব্বাসী খানম-এর মডারেশনে প্রথম পর্বে আরও বক্তব্য রাখেন স্থপতি ও শিক্ষাবিদ ড. নুরুর রহমান খান।

উপস্থিত ছিলেন স্থাপত্য বিভাগের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষকবৃন্দ এবং দেশ ও দেশের বাহিরের বিভিন্ন স্থপতিবৃন্দ। স্থাপত্য বিভাগ আয়োজিত এই পর্বে আরও উপস্থিত ছিলেন ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, মিশর, তুর্কি এবং যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের আমন্ত্রিত স্থপতিবৃন্দ।

সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন সহযোগী অধ্যাপক ও স্থপতি আশিকুর রহমান, সহকারী অধ্যাপক ও স্থপতি হোসেন মুরাদ, প্রভাষক ও স্থপতি কুহেলী চৌধুরী। সার্বিক তত্ত্বাবধানে সহায়তা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রে পিএইচডি অধ্যয়নরত স্থপতি জায়েদী আমান এবং স্থাপত্য বিভাগের প্রভাষক ও স্থপতি মো. ওবায়দুল হক। বিজ্ঞপ্তি